ডিগ্রী প্রথম বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে Whatsapp করুন: +8801979786079 

ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের বৈশিষ্ট্যগুলাে উল্লেখ কর।


অথবা, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের পদ্ধতি লিখ।
অথবা, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের নিয়ামকগুলাে লেখ।
অথবা, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য উল্লেখ কর।
অথবা, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের বৈশিষ্ট্যসমূহের বর্ণনা দাও।
ভূমিকা :
স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন বলতে স্থানীয় সমস্যা সমাধানকল্পে স্থানীয় জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি নিয়ে একটি নির্দিষ্ট ভূখণ্ড বা এলাকার শাসন পরিচালনাকে বুঝায় ।
স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের বৈশিষ্ট্য : স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকার হলাে স্থানীয় এলাকার, স্থানীয় জনগণের প্রতিনিধি কর্তৃক পরিচালিত এক ধরনের শাসনব্যবস্থা। যেখানে সীমিত আকারে হলেও প্রতিনিধিরা আইন তৈরি, অর্থসংগ্রহ ও ব্যয়, পরিকল্পনা তৈরি ও বাস্তবায়ন করতে পারে। স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের বৈশিষ্ট্যসমূহ নিম্নরূপ :
১. জনগণের প্রতিনিধিত্ব : স্থানীয় জনগণের ভােটে নির্বাচিত প্রতিনিধি নিয়ে স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকার গঠিত হয়। কাজেই এর প্রধান বৈশিষ্ট্য হলাে জনগণের প্রতিনিধিদের শাসনব্যবস্থা ।
২. স্থায়ী সংগঠন : স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকার একটি স্থায়ী সংগঠন। এটাকে সরকার ইচ্ছা করলেই বিলুপ্ত করতে পারে না ।
৩. বিধিবদ্ধ সংস্থা : স্থায়ী স্বায়ত্তশাসিত সরকার একটি বিধিবদ্ধ সংস্থা। এর চুক্তি করার ক্ষমতা থাকবে, এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা যাবে, অথবা এ নিজেও মামলা করতে পারবে।
৪. গণতান্ত্রিক চর্চার সূতিকাগার : স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকার ব্যবস্থা গণতান্ত্রিক চর্চার সূতিকাগার। এখানে। নিয়মিত নির্বাচন হয়, জনগণ এতে অংশগ্রহণ করে। কাজেই এটা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার একটি আদর্শ নমুনা।
৫. রাজনৈতিক শিক্ষার কেন্দ্র : স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলাে এটি রাজনৈতিক শিক্ষার মূল কেন্দ্র। এই সরকারের মাধ্যমে জনগণ রাজনৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়। এখান থেকে রাজনৈতিক জ্ঞান অর্জন করে অনেকেই জাতীয় রাজনীতিতে প্রবেশ করে।
৬. নেতৃত্ব বিকাশের সুযােগ : স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারগুলাে ছােট ছােট থাকে। এখানে নেতৃত্ব দেয়ার পরে অনেকেই জাতীয় সরকার পরিচালনার মতাে নেতৃত্ব দিয়ে থাকে।
৭. ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ : ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ বা ক্ষমতার বিভাজন এই ব্যবস্থার অন্যতম একটি বৈশিষ্ট্য ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের জন্যই স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের সৃষ্টি।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সুরকার আঞ্চলিক জনপ্রতিনিধিদের দ্বারা গঠিত ও পরিচালিত সরকার। এটি কেন্দ্রীয় সরকারের আইনগত নিয়ন্ত্রণের অধীনে নিজেদের নীতি, সিদ্ধান্ত ও পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করতে পারে।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.