Answer

শিশু মৃত্যুহার কাকে বলে?

অথবা, শিশু মৃত্যুহার বলতে কী বুঝায়?
অথবা, শিশু মৃত্যুহারের সংজ্ঞা দাও।
অথবা, শিশু মৃত্যুহার কী?
উত্তর৷ ভূমিকা :
সাধারণত জন্মের সময় থেকে যাদের বয়স এক বছরের কম তাদেরকে শিশু বলে। এ সময়ের মধ্যে জীবিত জন্মগ্রহণকারীদের অনেকেই বিভিন্ন কারণে মৃত্যুবরণ করতে পারে। মূলত একেই শিশুমৃত্যু বলে। আর এ শিশুমৃত্যুর পরিমাপ পদ্ধতিই হচ্ছে শিশু মৃত্যুহার। এটি মৃত্যুহার পরিমাপের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি ।
শিশু মৃত্যুহার : শিশু মৃত্যুহার বলতে কোনো নির্দিষ্ট বছরের মধ্যে জন্মগ্রহণকারী প্রতি হাজার শিশুর মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যাকে বুঝায়। অন্যভাবে বলা যায় যে, জন্মদিন থেকে এক বছরের মধ্যে শিশুমৃত্যুর ঝুঁকির পরিমাপকে শিশু মৃত্যুহার বা Infant mortality rate বলে।
IF PROP TO
শিশু মৃত্যুহার পরিমাপের সূত্র : শিশু মৃত্যুহার পরিমাপ করতে যে সূত্র প্রয়োগ করতে হয় তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো : IMR BOX K.
এখানে, IMR = শিশু মৃত্যুহার,
Do = এক বছর বয়স পূর্তির পূর্বে মৃত্যুবরণকারীদের মোট সংখ্যা,
B = ঐ সময়ে মোট জীবিত জন্মের সংখ্যা,
K = 1000 (ধ্রুবক)।
ঢাকা শহরে 1998 সালে নিবন্ধীকৃত মোট শিশুমৃত্যুর সংখ্যা 7,023 এবং 1998 সালে নিবন্ধীকৃত জীবিত জন্মগ্রহণকারী মোট শিশুর সংখ্যা হলো 81,642
এক্ষেত্রে ১৯৯৮ সালে ঢাকা শহরে শিশু মৃত্যুহার হবে : এর অর্থ হচ্ছে 1998 সালে ঢাকা শহরে 1,000 জীবিত জন্মগ্রহণকারী শিশুর মধ্যে 86.02 জন তাদের জন্মের প্রথম বছরের সময়সীমার মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে।
শিশু মৃত্যুহারের শ্রেণিবিভাগ : চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে, শিশু মৃত্যুহার দুই ধরনের হতে পারে। যথা :
১. নবজাত মৃত্যুহার (Neo-natal mortality rate),
২. জন্মোত্তর মৃত্যুহার (Post-neo-natal mortality rate)।
১. নবজাত মৃত্যুহার (Neo-natal mortality rate) : সাধারণত শিশু জন্মের ৪ সপ্তাহ (২৮ দিন) বা এক মাসের মধ্যে মৃত্যুহারকে নবজাত মৃত্যুহার বা Neo-natal mortality rate বলে। এ নবজাত মৃত্যুর কারণ হিসেবে জন্মগত অস্বাভাবিকতা, অঙ্গ-বিকৃতিহেতু মৃত্যু, অপরিণত বয়সের জন্য মৃত্যু, শ্বাসরুদ্ধ মৃত্যু প্রভৃতিকে দায়ী করা হয়।
২. জন্মোত্তর মৃত্যুহার (Post-neo-natal mortality rate) : জন্মোত্তর মৃত্যুহার বা Post-neo-natal mortality rate বলতে শিশু জন্মের ১-১২ মাসের বা ৪-৫২ সপ্তাহের মধ্যে মৃত্যুহারকে বুঝায়। অন্যভাবে বিভিন্ন রকমের সংক্রামক ব্যাধি, দুর্ঘটনা প্রভৃতি কারণে ১-১২ মাসের মধ্যে শিশুমৃত্যু হলে তাকে Post-neo-natal mortality rate বলে ।
উপসংহার : উপর্যুক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, শিশু মৃত্যুহার হলো কোনো নির্দিষ্ট সময়ে সাধারণত এক বছর বয়সের কম মোট জন্মগ্রহণকারী শিশুদের মধ্যে প্রতি হাজারে মৃত্যুর সংখ্যা। মৃত্যুহার পরিমাপের এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি। বস্তুত শিক্ষার হার, স্বাস্থ্য সেবার মাত্রা, পরিবেশ, পিতা-মাতার আর্থিক অবস্থা প্রভৃতি উপাদান দ্বারা শিশু মৃত্যুহার প্রভাবিত হয় ।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!