লিঙ্গ অনুপাত নির্ধারণে প্রভাব সৃষ্টিকারী উপাদানসমূহ লিখ।

অথবা, লিঙ্গ অনুপাত নির্ধারণে প্রভাব সৃষ্টিকারী নিয়ামকসমূহ কী কী?
অথবা, লিঙ্গ অনুপাতের উপর প্রভাব বিস্তারকারী বিষয়গুলো লিখ।
উত্তর৷ ভূমিকা :
সম্প্রদায় ভেদে লিঙ্গ কাঠামোর পার্থক্য হয়। অর্থাৎ বিভিন্ন সম্প্রদায় নারী-পুরুষ গঠন কাঠামোতে পার্থক্য দেখা যায়। লিঙ্গ কাঠামো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। লিঙ্গ অনুপাত কোনো এলাকার আর্থসামাজিক অবস্থার একটি সূচক। আঞ্চলিক বিশ্লেষণের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার।
লিঙ্গ অনুপাত নির্ধারণে প্রভাব সৃষ্টিকারী উপাদান : লিঙ্গ অনপাত প্রজনন, মরণশীলতা ও স্থানান্তরঅত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব বিস্তারকারী উপাদান হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। জন্মের ক্ষেত্রে Sex অনুযায়ী পার্থক্য তৈরি হয়। নিম্নে লিঙ্গকে নির্দেশ করে এমন সব বিষয়ের বর্ণনা করা হলো :
১. প্রজনন : প্রজননশীলতা লিঙ্গ অনুপাত নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। প্রজননশীলতাকে জনসংখ্যার পরিবর্তনের মুখ্য নিয়ামক বলা হয়।
২. মৃত্যুহার : লিঙ্গ সংযুক্তিকে প্রভাবিত করে এমন সব উপাদানের মধ্যে মৃত্যুহার অত্যন্ত নিবিড় ভূমিকা পালনকারী উপাদান । একটি দেশের বয়স কাঠামো নির্ধারণে মৃত্যুহার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
৩. স্থানান্তর বা গমনাগমন : বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে স্থানান্তর বা গমনাগমন একটি স্বীকৃত ব্যবস্থা। যারা একদেশ থেকে অন্যদেশে গমন স্থানান্তর বা গমনাগমন করে তাদের বেশিরভাগই পুরুষ, যাদের বয়স ১৭-২৯ বছরের মধ্যে। এতে সংশ্লিষ্ট দেশসমূহের জনসংখ্যার বয়স কাঠামো প্রভাবিত হয় ।
৪. জনসংখ্যা পিরামিড : একটি জনসংখ্যার Age-sex-composition-কে Graphically উপস্থাপন করে সে পদ্ধতিকে বলা হয় Population pyramid, এই পিরামিডে age এবং sex-কে ভাগ করে দেখানো হয়।
৫. মৃত্যুহারের ক্ষেত্রে লিঙ্গ প্রভেদ : অধিকাংশ দেশেই মহিলার তুলনায় পুরুষের মৃত্যুহার বেশি যদিও বিশেষ Age group-এর ক্ষেত্রে এ প্রবণতার হার কিছুটা ব্যতিক্রম দেখা যায়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায়, লিঙ্গ কাঠামোর দ্বারা জনসংখ্যা কাঠামো সঠিকভাবে অনুধাবন করা যায় ।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*