Answer

রেমিট্যান্স বৃদ্ধির উপায়সমূহ লিখ।

অথবা, কীভাবে রেমিট্যান্স বৃদ্ধি করা যায় আলোচনা কর।
অথবা, রেমিট্যান্স বৃদ্ধি করার পন্থাসমূহ বিশ্লেষণ কর।
অথবা, রেমিট্যান্স কীভাবে বৃদ্ধি করা যায়? এর উপায় সমূহ বিশ্লেষণ কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
সরকার দেশে রেমিট্যান্স বৃদ্ধির জন্য নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। বিশেষ করে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর উপর বাংলাদেশ ব্যাংকের নিবিড় ও কার্যকর তদারকির ফলে রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে।
রেমিট্যান্স বৃদ্ধির উপায় : রেমিট্যান্স প্রবাহের গতিশীলতা আরো বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে নিম্ন বর্ণিত সুপারিশসমূহ ক্রমানুসারে তুলে ধরা হলো :
১. হুন্ডি ব্যবসায় রোধ : অবৈধ হুন্ডি ব্যবসায়ই হলো রেসিট্যান্সের প্রধান শত্রু। কাজেই মূলত হুন্ডিকে প্রতিরোধ করে অফিসিয়াল চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি করা যেতে পারে। এ লক্ষ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরে যেখানে অধিকসংখ্যক বাংলাদেশি প্রবাসী বসবাস করে ঐ সমস্ত শহরে ন্যূনতম সংখ্যক জনবল নিয়ে স্থান সংকুলানযোগ্য ছোট
পরিসরে এক্সচেঞ্জ হাউজ স্থাপন করা যেতে পারে যাতে করে প্রশাসনিক ব্যয় বেশি না হয়।
২. এক্সচেঞ্জ হাউসগুলো শক্তিশালীকরণ : বিদেশে ইতোমধ্যে স্থাপিত এক্সচেঞ্জ হাউসগুলোর মান উন্নয়ন ও শক্তিশালীকরণের ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রতিটি এক্সচেঞ্জ হাউজের কর্মতৎপরতা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে। সে সাথে রাখতে হবে পুরস্কার ও তিরস্কারের ব্যবস্থা। প্রবাসীদের অফিসিয়াল চ্যানেলের মাধ্যমে কষ্টার্জিত বৈদেশিক আত্মীয়স্বজন ও প্রিয়জনের নিকট পাঠানোর জন্য উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহিত করতে হবে।
৩. উদ্বুদ্ধকরণে লিফলেট বিতরণ : প্রবাসী বাংলাদেশিরা যখন কোন সাংস্কৃতিক সামাজিক অথবা ধর্মীয় অনুষ্ঠান। উপলক্ষ্যে একত্রিত হন তখন এক্সচেঞ্জ হাউজের ম্যানেজার বা প্রতিনিধি কর্তৃক প্রবাসী ভাই-বোনদেরকে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে। অফিসিয়াল চ্যানেলে অর্থ পাঠানোর সুফল ও কুফল সংম্বলিত লিফলেট বা ফ্লায়ার বিলি করতে হবে। মাধ্যম। বিদেশে অবস্থিত আমাদের এক্সচেঞ্জ হাউজ থেকে প্রবাসী বাংলাদেশি ভাই-বোনদের টেলিফোনে কুশলাদি |
৪. টেলিফোনের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধকরণ : প্রবাসীদের নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষার জন্য টেলিফোন একটি অন্যতম। বিনিময়ের মাধ্যমে তাদেরকে অফিসিয়াল চ্যানেলে অর্থ প্রেরণে উদ্বুদ্ধ করা সহজতর। এ ব্যাপারেও আন্তরিকতার সাথে উদ্যোগ নিতে হবে।
৫. উদ্বুদ্ধকরণে ডোর গমন : এক্সচেঞ্জ হাউজের ম্যানেজারকে সর্বক্ষণ বাংলাদেশিদের ডোর টু ডোর যেতে হবে এবং তাদেরকে অফিসিয়াল চ্যানেলে তাদের কষ্টার্জিত অর্থ পাঠানোর জন্য উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
৬. সেবার দ্রুততা প্রদান : প্রবাসে বসেই যাতে প্রবাসী বাংলাদেশিগণ দেশের বিভিন্ন ব্যাংকে সহজে ও দ্রুত বিভিন্ন ধরনের একাউন্ট, বিশেষ করে সেভিংস একাউন্ট এবং ফরেন কারেন্সি একাউন্ট খুলতে পারেন সে লক্ষ্যে এক্সচেঞ্জ হাউজের ম্যানেজার বা প্রতিনিধি প্রবাসী কাস্টমারগণকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করবে।
৭. প্রণোদনার ব্যবস্থাকরণ : যেসব প্রবাসী সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স পাঠাবেন একচেঞ্জ হাউজগুলোর তরফ থেকে তাদেরকে বিশেষ কোন ইনসেনটিভ দেয়া যেতে পারে।
৮. IPO তে কোটার ব্যবস্থা : বিদেশ থেকে বৈধভাবে টাকা পাঠাতে উৎসাহ দেয়ার লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন কোম্পানির প্রাথমিক শেয়ারের প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য বিশেষ কোটার ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে ।

৯. শুল্কমুক্ত কাস্টমস সুবিধা প্রদান : বছরে টপটেন রেমিটার যারা স্থায়ীভাবে বা সাময়িকভাবে দেশে আত্মীয়স্বজনের সাথে দেখা করতে আসবেন, তাদেরকে বিমানবন্দরে প্রকারভেদে কমবেশি শুল্কমুক্ত কাস্টম সুবিধা প্রদান করা যেতে পারে।
১০. সেবার মান ও গতি বৃদ্ধি : দেশের অভ্যন্তরে রেমিট্যান্স হিসেবে আগত অর্থ বিতরণে সেবার মান ও গতি বৃদ্ধির লক্ষ্যে রেমিট্যান্স বিতরণকারী শাখাসমূহ সংশিষ্ট নিয়ন্ত্রণকারী কার্যালয় থেকে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কর্তৃক ব্যক্তিগতভাবে সরেজমিনে আকস্মিক ও নিয়মিত পরিদর্শন করতে হবে এবং বিলম্বিত ডেলিভারির জন্য সংশিষ্ট কর্মকর্তা বা কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
১১. সকল কর্মকাণ্ড নিবিড়ভাবে মনিটরকরণ : দেশে লাইসেন্সধারী মানি এক্সচেঞ্জগুলোর কর্মকাণ্ড নিবিড়ভাবে মনিটর করতে হবে যাতে তারা তাদের নির্ধারিত আদর্শ ও উদ্দেশ্য থেকে বিচ্যুত না হয় ।
১২. দক্ষ জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধিকরণ : জনশক্তি রপ্তানি ও রেমিট্যান্স অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। একটিকে বাদ দিয়ে অপরটিকে ভাবা যায় না। রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধির লক্ষ্যে দক্ষ জনশক্তি রপ্তানির জন্য নতুন নতুন বাজার খুঁজে বের করতে হবে।
১৩. প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক গঠন : প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য একটি পৃথক প্রতিষ্ঠান করা যেতে পারে। এ ব্যাংক বর্তমানে প্রতিষ্ঠিত কর্মসংস্থান ব্যাংকের ন্যায় একটি আলাদা ব্যাংক হিসেবে প্রবাসীদের কল্যাণে নিয়োজিত থাকবে। রেমিট্যান্স ব্যবসায়সহ প্রবাসীদের জন্য সকল প্রকার ব্যাংকিং সার্ভিস প্রদান করবে।
উপসংহার : আলোচনার পরিশেষে বলা যায়, রেমিট্যান্স বৃদ্ধির জন্য প্রবাসীদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে। বিভিন্ন ধরনের পুরস্কার ব্যবস্থা করতে হবে।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!