বিবাহবিচ্ছেদের সামাজিক কারণ কী?

অথবা, বিবাহ বিচ্ছেদের কারণসমূহ আলোচনা কর।
অথবা, কী কী সামাজিক কারণে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে থাকে? আলোচনা কর।
অথবা, বিবাহ বিচ্ছেদের সামাজিক কারণসমূহ উল্লেখ কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত হচ্ছে বিবাহ। বিবাহ হচ্ছে বয়োপ্রাপ্ত পুরুষ ও মহিলার মধ্যে এমন এক সম্পর্ক যার মাধ্যমে তারা যৌন সম্পর্ক স্থাপন করার এবং একত্রে বসবাস করার সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সমর্থন লাভ করে।
বিবাহবিচ্ছেদ : সুখী দাম্পত্য জীবনই বিবাহের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য। তবে এদের মধ্যে কোন কারণে বিচ্ছেদ ঘটলেই তা বিবাহবিচ্ছেদ নামে পরিচিতি লাভ করে।
সামাজিক কারণ : বিবাহবিচ্ছেদের সামাজিক কারণগুলো নিম্নরূপ :
১. বর কনের মানসিক অপরিপক্কতা, সামাজিক মর্যাদা ও শিক্ষা ইত্যাদিকে বিবেচনায় না এনে ছেলেমেয়েদের মধ্যে পারস্পরিক সমঝোতার অভাব দেখা দেয়। এর শেষ পরিণতি হয় বিবাহবিচ্ছেদ।
২.স্বামী-স্ত্রীর ভালোবাসার ভিত্তি দুর্বল হলে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।
৩.স্বামী-স্ত্রীর জীবনাচরণ ও দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্যের কারণে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।
৪.কর্মজীবী স্বামী-স্ত্রীর সন্তান লালন পালনজনিত সমস্যার পারস্পরিক দোষারোপ অনেক সময় বিবাহবিচ্ছেদের পথকে ত্বরান্বিত করে।
৫.নারী নির্যাতনের কারণেও বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।
৬.স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পারস্পরিক প্রত্যাশার অসন্তুষ্টি বিবাহবিচ্ছেদের একটি কারণ।
৭.যৌতুকের দাবি এবং প্রতিশ্রুত যৌতুক প্রদানে ব্যর্থ হলে বিবাহবিচ্ছেদ হয়।
৮.স্বামীর-স্ত্রীর মধ্যে মানসিক উদ্বেগ উত্তেজনা ও হতাশা বিবাহবিচ্ছেদের কারণ।
৯.স্বামী-স্ত্রীর সংসার পরিবেশ মানিয়ে চলার অপরাগতা অনেক সময় বিবাহ বিচ্ছেদের পথকে প্রশস্ত করে।
১০.স্বামী বা স্ত্রীর চারিত্রিক অবক্ষয় ও নেশাগ্রস্ততা এবং স্বামী অন্য মেয়ের প্রতি আসক্তি ও স্ত্রী অন্য পুরুষের প্রতি আকর্ষণ বিবাহবিচ্ছেদের অন্যতম কারণ।
১১. ব্যক্তিত্বের অমিল, পারিবারিক দ্বন্দ্ব সংঘাতের কারণে বিবাহবিচ্ছেদ হয়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায়, বিভিন্ন সামাজিক, অর্থনৈতিক মানসিক অবস্থা বিবাহবিচ্ছেদের জন্য দায়ী হলেও তা প্রতিরোধের ব্যাপারটা মূলত প্রত্যক্ষভাবে মনস্তাত্ত্বিক অবস্থার উপর নির্ভর করে। তাই স্বামী-স্ত্রীর মনস্তাত্ত্বিক অবস্থাকে মুখ্য বিবেচনায় এনেই বিবাহবিচ্ছেদ মোকাবিলা করা দরকার।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*