বাংলাদেশের পরিবারের উপর শিল্পায়ন ও নগরায়ণের প্রভাব লিখ

অথবা, বাংলাদেশের পরিবারের উপর শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ভূমিকা লিখ।
অথবা, বর্তমান পরিবারের উপর শিল্পায়ন ও নগরায়নের মুখ্য ভূমিকা পালন করে কি? বর্ণনা দাও।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বাংলাদেশে এখনো ব্যাপক শিল্পায়ন ও নগরায়ণ হয় নি। নগরায়ণ যা হয়েছে সে অনুযায়ী শিল্পায়ন হয়নি এবং কর্মক্ষেত্রের সুযোগ যা বৃদ্ধি পেয়েছে তাও জনসংখ্যার অনুপাতে বেশি নয়। কেননা অদ্যাবধি ৯০% লোক গ্রামে বসবাস করে এবং কৃষি কাজের উপরই তারা প্রধানত নির্ভরশীল। তবুও শিল্পায়ন ও নগরায়ণ পরিবার কাঠামো এবং কাজকর্মের উপর প্রভাব রেখেছে।
শিল্পায়ন ও নগরায়ণের প্রভাব :
১. শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে নতুন কর্মক্ষেত্রের সুযোগ তৈরি হওয়ায় গ্রামের যৌথ পরিবারের শিক্ষিত কর্মক্ষম ব্যক্তিরা শহরে অণুপরিবার গড়ে তুলছে।
২.. নগরায়ণের ফলে শহরে নয়াবাস রীতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
৩. নগরায়ণ ও শিল্পায়নের ফলে পরিবারগুলো আকারে থাকছে ছোট। সীমিত আয় এবং বাসস্থান সমস্যার কারণে Jision ও স্বল্প পরিসরে ক্ষুদে পরিবার হচ্ছে নগরস্থ পরিবারের বর্তমান বৈশিষ্ট্য।
৪. শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে পরিবারের জাতি প্রথার মধ্যে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে।
৫.ঐতিহ্যবাহী পিতৃপ্রধান পরিবারের প্রকৃতিতে এসেছে পরিবর্তন। নগরস্থ পরিবার বিশেষ করে নগরের শিক্ষিত মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্ত পরিবারে এখন নেতৃত্ব চূড়ান্তভাবে কেবল স্বামীর হাতেই ন্যস্ত নয়। সিদ্ধান্ত গ্রহণে বিশেষ
করে শহরের স্বামীরা স্ত্রীর মতামতের যথেষ্ট গুরুত্ব দেন।
৬. নগরায়ণের ফলে পূর্বেকার পরিবারের কিছু কাজ নগরস্থ পরিবারগুলো আর তেমন করছে না। অবসর যাপন শিক্ষাদান, চিত্তবিনোদন, সন্তান-সন্ততি রক্ষণাবেক্ষণ ইত্যাদি কাজ পরিবারের বাইরে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের উপর ন্যস্ত হচ্ছে।
৭. শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে পরিবারের সাংস্কৃতিক জীবনেও পরিবর্তন এনেছে।
উপসংহার : উপর্যুক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, শিল্পায়ন ও নগরায়ণ পরিবারের গঠন কাঠামোতে অনেক পরিবর্তন এনেছে। এই পরিবর্তন কখনো ইতিবাচক কখনো নেতিবাচক ভূমিকা পালন করে।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*