Answer

বহুমুখী খামারের অসুবিধাসমূহ লিখ ।

অথবা, বহুমুখী খামারের অপকারিতাসমূহ আলোচনা কর।
অথবা, বহুমুখী খামারের কুফলসমূহ আলোচনা কর।
অথবা, বহুমুখী খামারের অসুবিধাসমূহ বর্ণনা কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
কোনো কৃষি খামারে একাধিক শস্য উৎপাদিত হলে তাকে বহুমুখী খামার বলে। যেমন- কোনো খামারে ধান, পাট, শাকসবজি প্রভৃতি একাধিক ফসল উৎপাদিত হলে তাকে বহুমুখী খামার বলে।
বহুমুখী খামারের অসুবিধাসমূহ : বহুমুখী খামারের কিছু অসুবিধা রয়েছে। এগুলো নিম্নরূপ
১. বহুমুখী খামারের একাধিক পণ্য উৎপাদিত হয়। ফলে কৃষক কোন একটি পণ্য উৎপাদনে পারদর্শিতা অর্জন করতে পারে না। এজন্য এ খামারের উৎপাদনের মান কিছুটা নিম্ন হয়।
2.এ খামারে কয়েকটি ফসল উৎপাদিত হলেও মাটি ও জলবায়ু কেবল একটি ফসল উৎপাদনের অনুকূলে থাকে। ফলে যেসব ফসল উৎপাদনের ক্ষেত্রে মাটি ও জলবায়ু অনুকূল থাকে না, সেগুলোতে প্রাকৃতিক সুবিধা লাভ করা যায় না।
৩.এ খামারে কয়েকটি পণ্য উৎপাদিত হয় বলে চাষাবাদ কাজ পরিচালনা ও তার তত্ত্বাবধান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা যায় না। ফলে উৎপাদন কাজ পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানের ক্ষেত্রে জটিলতা দেখা দেয় এবং উৎপাদন ব্যাহত হয়।
৪.এ খামারে বিভিন্ন ফসল উৎপাদিত হয় বলে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধরনের কৃষি যন্ত্রপাতির প্রয়োজন পড়ে। এর ফলে কোন যন্ত্রই পূর্ণভাবে ব্যবহার করা সম্ভব হয় না।
৫. এ খামারে উৎপাদিত একাধিক পণ্য বাজারজাত করতে গিয়েও কৃষক যথেষ্ট অসুবিধার সম্মুখীন হয়। কারণ একেকটি পণ্যের মান, চাহিদা ও যোগান একেক রকম থাকে। কৃষকের পক্ষে সবগুলো পণ্যের বাজার পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত থাকা সম্ভব নয়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, একই সাথে অন্য শস্য উৎপাদন করা হয় বলে কৃষক সবগুলো পণ্যের দিকে সমান মনোযোগ দিতে পারে না। এর ফলে উৎপাদন যথেষ্ট পরিমাণে হয় না।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!