ডিগ্রী প্রথম বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে Whatsapp করুন: +8801979786079 

ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

পৌরসভার উদ্দেশ্য ও গঠন উল্লেখ কর। 

অথবা, পৌরসভা কোন উদ্দেশ্যে গঠিত হয়েছে এবং এর গঠন প্রক্রিয়া উল্লেখ কর।
অথবা, কোন উদ্দেশ্যের প্রেক্ষাপটে পৌরসভা গঠিত হয়েছে?
অথবা, পৌরসভার উদ্দেশ্য ও গঠন বর্ণনা কর।
অথবা, পৌরসভার উদ্দেশ্য ও গঠন সম্পর্কে আলােচনা কর।
অথবা, পৌরসভার উদ্দেশ্য ও গঠন সম্পর্কে যা জান লিখ।
ভূমিকা :
বাংলাদেশের স্থানীয় শাসনব্যবস্থা গ্রামভিত্তিক এবং শহরভিত্তিক হয়ে থাকে । গ্রামভিত্তিক যেমন- ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ তেমনি শহর এলাকাভিত্তিক স্থানীয় প্রশাসন ব্যবস্থা মূলত পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনের উপর ভিত্তি করেই গড়ে ওঠে।

পৌরসভার উদ্দেশ্য ও গঠন: ১৯৭৭ সালে পৌরসভা অধ্যাদেশে বলা হয়েছে যে, যেসব এলাকায় কমপক্ষে পনেরাে হাজার লােক বাস করেন, যেখানে প্রতি বর্গমাইলে অন্তত দু’হাজার লােক বাস করেন, যেখানে তিন-চতুর্থাংশ জনশক্তির জীবিকার্জনের পন্থা কৃষিকাজ নয়, সেসব এলাকা শহর বলে পরিচিত। শহরের স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠান হলাে পৌরসভা। ইউনিয়ন পরিষদ যেমন- গ্রামীণ পর্যায়ে দায়িত্বশীল শাসনব্যবস্থা গঠনের লক্ষ্যে স্থাপিত তেমনি পৌরসভা শহর এলাকার স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন গড়ে তােলার লক্ষ্যে স্থাপিত। শহর এলাকার সমস্যা স্থানীয় ভিত্তিতে সমাধানপূর্বক শহর জীবনের শ্রীবৃদ্ধি সাধন, গণসহায়তা বৃদ্ধি এবং শহরভিত্তিক দায়িত্বশীল নেতৃত্বের বিকাশ ঘটানাে পৌরসভার উদ্দেশ্য। পৌরসভা গ্রামীণ এলাকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানাদির সঙ্গে যােগসূত্র স্থাপন করে স্থানীয় পর্যায় হতে কেন্দ্রীয় পর্যায় পর্যন্ত ঐক্যবদ্ধ ও সংহত গণতান্ত্রিক জীবনব্যবস্থা গড়ে তােলার লক্ষ্যে দায়িত্ব পালন করে। বাংলাদেশের শহর এলাকার সমাধানের লক্ষ্যে পৌরসভা স্থানীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বাংলাদেশের প্রত্যেক পৌর এলাকার জন্য একটি করে পৌরসভা আছে। তবে বড় বড় শহরের জন্য বিশেষ করে বিভাগীয় শহরের জন্য পৌরসভার পরিবর্তে “সিটি কর্পোরেশন’ নামে শহরভিত্তিক স্থানীয় সরকার কার্যকর আছে। বর্তমানে বাংলাদেশে তিন ক্যাটাগরির (A.B.C) ২৮৩টি পৌরসভা আছে। পৌরসভা সদস্যগণ কাউন্সিলর নামে পরিচিত। পৌরসভার কাউন্সিলরগণ প্রাপ্ত বয়স্কদের প্রত্যক্ষ ভােটে নির্বাচিত হবেন। পৌর এলাকার ভােটারদের প্রত্যক্ষ ভােটে পৌরসভার মােট সদস্যের এক-দশমাংশ মহিলা সদস্য নির্বাচিত হবেন। এরূপে পৌরসভা একজন মেয়র, নির্বাচিত কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলর সমন্বয়ে গঠিত হবে।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, দেশের সকল পৌরসভার সদস্য সংখ্যা সমান নয়। পৌর এলাকার জনসংখ্যা তারতম্যহেতু সদস্য সংখ্যা কমবেশি হতে পারে। পৌরসভার কার্যকাল পাঁচবছর। অসদাচরণ, ক্ষমতার অপব্যবহার ও পৌরসভার সম্পত্তির ক্ষতি সাধন করলে দুই-তৃতীয়াংশ সদস্যের ভােটে চেয়ারম্যান বা কোনাে সদস্য অপসারিত হতে পারেন।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.