ডিগ্রি ২য় বর্ষ(২০১৯-২০) নিয়মিত ও প্রাইভেট শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফরম পূরণ চলবে ৭/০২/২০২৩ থেকে ৭/০৩/২০২৩ পর্যন্ত। *পরীক্ষা হবে কেন্দ্র খালি থাকলে এপ্রিলের শুরুতে বা ঈদের পরপরই। কলেজসমূহে ফরম পূরণ ফি ১৫০০ এর মধ্যে।

পিআরএসপি এর প্রধান কৌশল কী কী?

অথবা, PRSP এর কৌশলসমূহ সংক্ষেপে বর্ণনা কর।
অথবা, PRSP এর কৌশলসমূহ লিখ।
অথবা, “Reduction Strategic Paper” এর কৌশলসমূহ উল্লেখ কর।
অথবা, “দারিদ্র্য নিরসন কৌশলপত্র” এর কৌশলসমূহ লিখ।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বিশ্বব্যাংক ও আইএসএফ-এর নমনীয় ঋণ সহায়তা পাওয়ার একটি অন্যতম শর্ত হলো দারিদ্র্য হ্রাস করার জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ কৌশলপত্র প্রণয়ন। প্রবৃদ্ধির হার ৭% (শতাংশ) ধরে রেখে উন্নয়ন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকার ২০১১ সালে” অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও দারিদ্র্য নিরসনের একটি জাতীয় কৌশল” প্রণয়ন করে। ২০০৩ সালে এর নাম
পরিবর্তন করে বলা হয় “দারিদ্র্য নিরসন কৌশলপত্র” বা Poverty Reduction Strategic Paper (PRSP).
দারিদ্র্য নিরসনের লক্ষ্য অর্জনের জন্য ৫টি কৌশল নির্ধারণ করা হয়। এগুলো হলো :
১. দরিদ্রদের জন্য আরো কর্মসংস্থান বাড়িয়ে দারিদ্র্য অনুকূল প্রবৃদ্ধি।
২. শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও সামাজিকভাবে দরিদ্রদের ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য মানব সম্পদ উন্নয়ন।
৩. উন্নয়নে নারীর অগ্রাধিকার ও জেন্ডার বৈষম্য নিরসন।
৪. যে কোনো ধরনের অপ্রত্যাশিত আয়-ব্যয় সংকট থেকে রক্ষা করতে দরিদ্রদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তাব্যবস্থা।
৫. দরিদ্রদের ভাষ্য তুলে আনতে শাসনব্যবস্থায় অংশীদারিত্ব।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, বাংলাদেশ তৃতীয় বিশ্বের একটি উন্নয়নশীল দেশ বিধায় বিশ্ব ব্যাংকসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক দাতাসংস্থা থেকে সহজশর্তে ঋণ পাওয়ার ক্ষেত্রে অন্যতম কৌশল হলো ‘দারিদ্র্য নিরসন কৌশলপত্র’ বা।Poverty reduction strategic paper (PRSP).

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!