ডিগ্রী এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এবং ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে Whatsapp করুন: +8801979786079  

ডিগ্রী এবং অনার্স পয় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ পরীক্ষা ২০২২ বিষয় উদ্ভিদবিজ্ঞান পঞ্চম পত্র রকেট স্পেশাল সাজেশন ৯০% কমন ইনশাল্লাহ

ক_বিভাগ (অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন)

১। পূর্ণরূপ লিখ-ETS, BRRI, BINA, CAM, NADP, SDC, LDC, 

২। জিবরেলিন উদ্ভিদের কোথায় সংশ্লেষিত হয়? 

উঃ উদ্ভিদের মূল, পাতা, বিটপ, ফুল ও পাপড়ি ইত্যাদি অঙ্গে সংশ্লেষিত হয়।

৩। কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ক্ষত সৃষ্টি হয়? 

উঃ ভিটামিন ঝি বা নিয়াসিন এর অভাবে মুখে ক্ষত সৃষ্টি হয়।

৪। পুষ্টি কী? 

উঃ উদ্ভিদের সুষ্ঠু বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য বাহির হতে যেসব উপাদান শোষণ করে, তাদেরকে পুষ্টি বলে।

৫। ভার্নালাইজেশনের জিনতত্ত্ব কী? 

উঃ ভার্নালাইজেশনের ফলে উদ্ভিদের বংশগতীয় পদার্থের পরিবর্তন ঘটাকে ভার্নালাইজেশনের জিনতত্ত্ব বলে।

৬। সালোকসংশ্লেষণকারী রঞ্জক পদার্থ বলতে কী বুঝ? 

উঃ যে সকল রঞ্জক পদার্থ সালোকসংশ্লেষণে ভূমিকা রাখে তাদের সালোকসংশ্লেষণকারী রঞ্জক পদার্থ বলে।

৭। Essential amino acid বলতে কী বুঝ? 

উঃ প্রাণীদেহের বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য যে সকল অ্যামাইনো এসিডকে বাহির থেকে গ্রহণ করতে হয় তাদেরকে অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড বলে।

৮। বীজতলার গুরুত্ব লিখ। 

উঃ বীজতলার মাধ্যমে সুস্থ ও রোগমুক্ত চারা উৎপাদন করা হয়। বীজতলায় চারা উৎপাদন নিরাপদ ও ক্ষতির সম্ভাবনা অনেক কম হয়ে থাকে।

৯। Emerson effect কী? 

উঃ বিজ্ঞানী ইমারসন বিভিন্ন তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের আলো প্রয়োগ করে দেখেন যে, লম্বা ও খাটো তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের প্রভাবে সালোকসংশ্লেষণের হার হ্রাস পায়। এই প্রভাবকে ইমারসন প্রভাব বলা হয়।

১০। Kranz anatomy-এর বৈশিষ্ট্যগুলো লিখ। 

উঃ C4 উদ্ভিদের পরিবহণ কলাগুচ্ছের চারপাশে ঘনসন্নিবিষ্ট পুরুপ্রাচীরযুক্ত ক্লোরেনকাইমা দ্বারা গঠিত সুস্পষ্ট বাগুলশীথ মালার ন্যায় অবস্থান করে থাকে, তাকে ক্রাজ এনাটমি বলে।

১১। অ্যামোনিফিকেশন বলতে কী বুঝ? 

উঃ জীবদেহের মৃত্যুর পর সেখানে বিভিন্ন প্রকার অণুজীবের কার্যকলাপের ফলে প্রোটিন ও অন্যান্য নাইট্রোজেন ঘটিত যৌগ হতে অ্যামোনিয়া উৎপাদনের পদ্ধতিকে অ্যামোনিফিকেশন বলে।

১২। a ও B গ্লুকোজের গঠনগত পার্থক্য দেখাও। 

উঃ গ্লুকোজের ১ নং কার্বন পরমাণুর ডানদিকে OH গ্রুপ যুক্ত থাকলে তাকে a-গ্লুকোজ আর বামদিকে যুক্ত থাকলে তাকে B গ্লুকোজ বলে। a ও B অবস্থানের কারণে গ্লুকোজের ভৌত রাসায়নিক ও জৈবিক বৈশিষ্ট্যের পরিবর্তন ঘটে।

১৩। পানির সালোক বিভাজন কাকে বলে?

উঃ আলোর সহায়তায় পানির জারণকে ফটোলাইসিস (Photolysis) বা পানির সালোকবিভাজন বলে।

১৪। শস্য পর্যায় কী?

উঃ কোনো একটি ভূখণ্ডে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিভিন্ন প্রকার শস্য ধারাবাহিকভাবে আবর্তন করানোকে শস্য পর্যায় ‘বা শস্য আবর্তন বলে।

১৫। অক্সিন কী?

উঃ অক্সিন হচ্ছে উদ্ভিদের বৃদ্ধিকারী একধরনের হরমোন। 

১৬। ফটোপিরিওডিজম কী?

উঃ উদ্ভিদের পুষ্পয়ানের উপর দিবা-রাত্রি বা আলোক অন্ধকারের তুলনামূলক দৈর্ঘ্য বা স্থিতিকালের প্রভাবকে ফটোপিরিওডিজম বলা হয়।

১৭। রাসায়নিক সার বলতে কি বুঝ?

উঃ অজৈব উৎস হতে কৃত্রিম উপায়ে ও বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কারখানায় প্রস্তুতকৃত সারকে রাসায়নিক সার বা অজৈব সার বলে।

১৮। লেয়ারিং এর সংজ্ঞা দাও।

উঃ মাতৃগাছে সংযুক্ত থাকা অবস্থায় শাখায় মূল উৎপাদন করে যে কলম তৈরি করা হয় সেই পদ্ধতিকে লেয়ারিং বলে।

১৯। শ্বসনিক হার কী?

উঃ নির্দিষ্ট তাপমাত্রা ও চাপে শ্বসনের সময় যে পরিমাণ CO2 ত্যাগ করে এবং যে আয়তনে O2 গ্রহণ করে তার অনুপাতকে শ্বাস অনুপাত বা RQ বলে।

২০। বৃহত্তর উপাদান বলতে কি বুঝায়?

উঃ যে সকল পুষ্টি উপাদান উদ্ভিদের দৈহিক বৃদ্ধি ও উন্নয়নের জন্য তুলনামূলকভাবে বেশি প্রয়োজন হয় তাদেররকে বৃহত্তর পুষ্টি উপাদান বলে।

২১। মিথোজীবী নাইট্রোজেন সংবন্ধন বলতে কি বুঝায়?

উঃ যে নাইট্রোজেন সংবন্ধন মিথোজীবী ব্যাকটেরিয়া ও সায়ানো-ব্যাকটেরিয়া দ্বারা লেগুমিনাস উদ্ভিদের নডিউলে সংঘটিত হয় তাকে মিথোজীবী নাইট্রোজেন সংবন্ধন বলা হয়।

২২। পলিস্যাকারাইড কাকে বলে?

উঃ যে সকল কার্বোহাইড্রেটকে আর্দ্রবিশ্লেষণ করলে বহু সংখ্যক মনোস্যাকারাইড অণু পাওয়া যায়, তাদেরকে পলিস্যাকারাইড বলে। যেমন : স্টার্চ, সেলুলোজ, গ্লাইকোজেন ইত্যাদি ।

২৩। অ্যামিনো অ্যাসিড কী?

উঃ অ্যামাইনো এসিড একটি নাইট্রোজেনযুক্ত যৌগ যার একটি কার্বক্সিল (— COOH) এবং একটি মূল অ্যামাইনো (— NH2) গ্রুপ থাকে।

২৪। কৈশিক পানি কাকে বলে?

উঃ মাটির কণার কৌশিকত্বের প্রভাবে যে পানি তার ফাঁকে ফাঁকে সঞ্চিত থাকে তাকে কৈশিক পানি বলে।

২৫। ভার্নালাইজেশনের সংজ্ঞা দাও?

উঃ উদ্ভিদের পুষ্পধারণে শৈত্যের প্রভাবকে ভার্নালাইজেশন বলে।

২৬। টমেটোর বৈজ্ঞানিক নাম লেখ।

উঃ Lycopersicon lycopersicum.

২৭। ভিটামিন কী?

উঃ যে সকল জৈব যৌগ অল্প মাত্রায় জীবের পুষ্টি, স্বাভাবিক বৃদ্ধি, বিকাশ ও প্রজননে প্রয়োজন হয় তাকে ভিটামিন বা খাদ্যপ্রাণ বলে ।

২৮। ফটো-ফসফোরাইলেশন কাকে বলে?

উঃ সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় আলোকশক্তি ব্যবহার করে ATP তৈরি করার প্রক্রিয়াকে ফটো-ফসফোরাইলেশন বলে।

২৯। প্রুনিং কী?

উঃ গাছের আকার আকৃতি সুন্দর করে, ফুল ও ফলের উৎপাদন বৃদ্ধি করতে গাছের কোনো অংশ কেটে বাদ দেবার পদ্ধতিকে প্রুনিং বলে।

৩০। ওলিগোস্যাকারাইড কাকে বলে?

উঃ যে সকল কার্বোহাইড্রেটকে হাইড্রোলাইসিস করলে ২ থেকে ১০টি মনোস্যাকারাইড অণু পাওয়া যায়, তাকে ওলিগোস্যাকারাইড বলে।

৩১। ফ্লোরিজেন কী?

উঃ রুশ বিজ্ঞানী Chailakhyan উদ্ভিদের পুষ্পায়নের উদ্দীপনার সাথে এক ধরনের হরমোন জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করেন এবং তিনি এর নাম দেন Florigen.

৩২। জীবাণু সার কী?

উঃ যেসব দ্রব্য মাটিতে প্রয়োগ করার পর মাটির জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়, যার কারণে মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি পায় এবং উদ্ভিদকে পুষ্টি উপাদান সরবরাহের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি করে তাকে জীবাণু বা অণুজীব সার বলে। যেমন- Azolla সার।

৩৩। এপে প্লাস্টিক চলন কাকে বলে?

উঃ সাইটোপ্লাজম ছাড়া আয়ন কোষপ্রাচীর বা আন্তঃকোষীয় ফাঁকের মধ্য দিয়ে পার্শ্বীয়ভাবে পরিবাহিত হলে তাকে আয়ন পরিবহনের এপোপ্লাস্টিক চলন বলে।

৩৪। পুষ্প কী?

উঃ রূপান্তরিত এবং বিশেষায়িত বিটপ যা যৌন প্রজননের সাথে সম্পৃক্ত, তাকে পুষ্প বলে।

৩৫। কৃষিতত্ত্ব বলতে কি বুঝ? 

উঃ কৃষিবিজ্ঞানের যে শাখা পাঠ করলে সুষ্ঠু মৃত্তিকা ব্যবস্থাপনার আলোকে শস্য উৎপাদন এবং এর বিভিন্ন নীতি ও কলাকৌশল সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান লাভ করা যায় তাকে কৃষিতত্ত্ব বলা হয়।

৩৬। মাটিস্থ কোন ধরনের পানি উদ্ভিদ কর্তৃক শোষিত হয়?

উঃ মাটিস্থ কৈশিক পানি এবং কণাশোষিত পানি উদ্ভিদ কর্তৃক শোষিত হয়।

৩৭। ডোনান সাম্যাবস্থা কি? 

উঃ ডোনান সাম্যাবস্থা হলো নিষ্ক্রিয় আয়ন পরিশোষণের একটি মতবাদ।

৩৮। মনোস্যাকারাইডের সংজ্ঞা দাও। 

উঃ যে সকল কার্বোহাইড্রেটকে আর্দ্রবিশ্লেষণ করলে নতুন কোনো সরলতম কার্বোহাইড্রেট একক পাওয়া যায় না তাকে মনোস্যাকারাইড বলে।

৩৯। প্রোস্থেটিক গ্রুপ কি? 

উঃ কনজুগেটেড প্রোটিনের অপ্রোটিন অংশকে প্রোস্থেটিক গ্রুপ বলে।

৪০। বীজের সুপ্ততা বা সুপ্তাবস্থা কী? 

উঃ পারিপার্শ্বিক অবস্থা স্বাভাবিক থাকা সত্ত্বেও কোনো বীজ কতকগুলো অভ্যন্তরীণ কারণে অংকুরিত না হলে এ অবস্থাকে বীজের সুপ্ততা বা সুপ্তাবস্থা বলে।

খ-বিভাগ (সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন)

১। অধিষ্ঠিত ফটোপিরিয়ড সম্পর্কে আলোচনা কর। ১০০%

২। অক্সিনের রাসায়নিক গঠনসহ শারীরবৃত্তীয় প্রভাবগুলো লিখ। ১০০%

৩। উদ্ভিদের সক্রিয় পরিশোষণ ও নিষ্ক্রিয় পরিশোষণের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%

৪। শ্বসনিক দক্ষতা কী ? উদাহরণসহ সংক্ষেপে আলোচনা কর। সালোকসংশ্লেষণ ও শ্বসনের পার্থক্য লিখ। ১০০%

৫। উদ্ভিদে নাইট্রোজেন ও ফসফরাস-এর অভাবজনিত লক্ষণগুলো লিখ। ১০০%

৬। এনজাইম ও ফাইটোহরমোনের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%

৭। পুষ্টির চাহিদা মেটাতে সব্জীর গুরুত্ব আলোচনা কর। ১০০%

৮। চারা স্থানান্তর পূর্ব ও পরবর্তী পরিচর্যা সম্পর্কে লিখ। বীজের অঙ্কুরোদগমের হার নির্ণয় পদ্ধতি বর্ণনা কর। ১০০%

৯। তিনটি সালফার ঘটিত অ্যামাইনো অ্যাসিডের নাম ও গাঠনিক সংকেত লিখ। ১০০%

১০। পটাসিয়াম ও ফসফরাসের অভাবজনিত লক্ষণ উল্লেখ কর। ১০০%

১১। ভিটামিন ‘A’ ও ভিটামিন ‘C’ এর অভাবজনিত রোগ লক্ষণ উল্লেখ কর। ৯৯%

১২। ভার্নালিন বলতে কী বুঝ? স্টার্চ ও সেলুলোজের পার্থক্য লিখ। ৯৯%

১৩। উদ্যানতত্ত্বের পরিসর সম্পর্কে ব্যাখ্যা কর। ৯৯%

১৪। আগাছার বৈশিষ্ট্য লেখ। আগাছা প্রতিরোধের উপায়গুলো বর্ণনা কর। ৯৯%

১৫। চক্রীয় এবং অচক্রীয় ফটোফসফোরাইলেশনের পার্থক্য লেখ। ৯৯%

গ-বিভাগ (রচনামূলক প্রশ্ন)

১। (ক) শ্বসনিক হার কী? গ্লাইকোলাইসিস কী? প্রাণরাসায়নিক বিক্রিয়াসহ এর ধাপগুলো বর্ণনা কর। ১০০%

(খ) শস্য পর্যায় বলতে কী বুঝ? এবং এর গুরুত্ব আলোচনা কর। ১০০%

২। (ক) মিথোজীবী নাইট্রোজেন সংবন্ধন কাকে বলে? উদ্ভিদের বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রকসমূহের শ্রেণিবিন্যাস কর। ১০০%

(খ) হিল বিক্রিয়া কী? সংক্ষেপে আলোচনা কর। প্রাণ রসায়নিক বিক্রিয়াসহ C4-চক্র বর্ণনা কর। ১০০%

৩। (ক) ভিটামিন বলতে কী বুঝ? বায়োটিনের রাসায়নিক গঠন লিখ। A, B এবং C ভিটামিনের গঠন, উৎস ও অভাবজনিত লক্ষণ আলোচনা কর। ১০০%

(খ) ফটোপিরিয়ডিজম কাকে বলে? ফটোপিরিয়ডিজমের ভিত্তিতে উদ্ভিদের শ্রেণিবিন্যাস উদাহরণসহ বর্ণনা কর। ১০০%

৪। (ক) দুটি সাধারণ আগাছার বৈজ্ঞানক নাম লিখ। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে আম চাষের গুরুত্ব উল্লেখ কর। ১০০%

(খ) সবুজ সার উৎপাদনে ব্যবহৃত উদ্ভিদগুলোর নাম উল্লেখপূর্বক-এর প্রয়োগের সুবিধা ও অসুবিধা আলোচনা কর। ১০০%

৬। (ক) পানিকে ‘ফ্লুইড অব লাইফ’ বলা হয় কেন? কোষরস আরোহণের বিভিন্ন মতবাদ ব্যাখ্যা কর। ১০০%

(খ) সালোকসংশ্লেষণের সমীকরণটি উল্লেখ কর। সবাত শ্বসন ও অবাত শ্বসনের পার্থক্য লিখ। অবাত শ্বসন ও ফার্মেন্টেশনের পার্থক্য লেখ। ১০০%

৭। (ক) বীজের সুপ্তাবস্থা ভাঙ্গার পদ্ধতিসমূহ ব্যাখ্যা কর। নাইট্রোজেন চক্রের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর। ১০০%

(খ) সারের সংজ্ঞা দাও। সার প্রয়োগ পদ্ধতি বর্ণনা কর। বিভিন্ন প্রকার রাসায়নিক সারের বর্ণনা দাও। ১০০%

৮। (ক) বীজতলা কী? একটি আদর্শ বীজতলা তৈরির নিয়ম বর্ণনা কর। বীজশোধনের বিভিন্ন পদ্ধতির বর্ণনা দাও। ১০০%

(খ) কৃষিতাত্ত্বিক ফসল ও উদ্যানতাত্ত্বিক ফসলের মধ্যে পার্থক্য কর। ১০০%

৯। (ক) কার্বোহাইড্রেট কী? উদাহরণসহ শ্রেণিবিন্যাস আলোচনা কর। পানি পরিবহণে সংশক্তি মতবাদ ব্যাখ্যা কর। ১০০%

(খ) আম এবং গোলাপের চাষাবাদ, যত্ন এবং রোগবালাই দমন সম্পর্কে লিখ। ১০০%

১০। (ক) পিগমেন্ট সিস্টেম কী? C ও C4 উদ্ভিদের পার্থক্য লেখ। ৯৯%

(খ) চিত্রসহ চক্ৰীয় ফটোফসফোরাইলেশনের বর্ণনা কর। ৯৯%

১১। (খ) নাইট্রোজেন চক্রের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দাও। ৯৯%

১২। (ক) কম্পোস্ট কী? কম্পোস্ট তৈরির পদ্ধতি বর্ণনা কর। ৯৯%

(খ) ম্যাগনেশিয়াম ও নাইট্রোজেনের অভাবজনিত লক্ষণ বর্ণনা কর। ৯৯%

১৩। (ক) উদাহরণসহ শর্করার আধুনিক শ্রেণিবিন্যাস কর। ৯৯%

(খ) টমেটোর চাষাবাদ এবং রোগবালাই দমন সম্পর্কে লেখ। ৯৯%

১৪। (ক) উদ্ভিদে আয়রন ও সালফারের অভাবজনিত লক্ষণ উল্লেখ কর। ৯৯%

(খ) এক অণু গ্লুকোজ জারিত হয়ে কত অণু ATP তৈরি হয় তার একটি ব্যালেন্স সীট তৈরি কর। ৯৯%

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.