ডিগ্রী প্রথম এবং অনার্স দ্বিতীষ ২০২২-২৩ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে Whatsapp করুন: +8801979786079  

ডিগ্রী এবং অনার্স দ্বিতীয় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
অনার্স ২য় বর্ষের রুটিন প্রকাশ হয়েছে আগামী ৩০ নভেম্বর থেকে থেকে রকেট স্পেশাল সাজেশন পাবেন । @ রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ পরীক্ষা ২০২২ বিষয় হিসাববিজ্ঞান ষষ্ঠ পত্র রকেট স্পেশাল সাজেশন ৯০% কমন ইনশাল্লাহ

ক_বিভাগ (অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন)
১। পূর্ণরূপ লিখ- JIT, ICMAB, ICMA, IMA, CMA, COO, VED , S.D.E , H.M.L , F.S.N , EOQ ,
JIT=Just In Time.
ICMAB=Institute of Cost and Management Accountants of Bangladesh.
ICMA=Institute of Cost and Management Accountant
IMA=Institute of Management accounts
CMA=Certified Management Accountant
COO=Chief operating officer
VED = Vital Essential Desire Analysis .
S.D.E = Searce , Difficult and Easily Available Analysis
H.M.L = Highest Medium and low cost item analysis
F.S.N = Fast Slow and Non Moving analysis
EOQ = Economic Order Quantity .
ITO = Inventory Turn Over .
২। প্রাসঙ্গিক ব্যায় কী?
উঃ একাধিক বিকল্পের মধ্যে পার্থক্য নির্দেশ করে এমন ভবিষ্যত ব্যয়কে প্রাসঙ্গিক ব্যয় বলে।
৩। EOQ কী?
উঃ যে পরিমাণ কাঁচমাল ক্রয় করলে কাঁচামাল ক্রয়
সংক্রান্ত মােট ব্যয় সর্বনিম্ন হয়, তাকে মিতব্যয়ী ফরমায়েশ
পরিমাণ বা EOQ বলে।
৪। খরচ কী?
উঃ খরচ হলাে সব মেয়াদোত্তীর্ণ ব্যয় যা আয় হতে বাদযােগ্য।
৫। শ্ৰম আৰ্বতন কী?
উঃ কর্মীগণ যখন নিজ ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় প্রতিষ্ঠান থেকে স্থায়ীভাবে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয় তাকে শ্রম আবর্তন বলে।
৬। পরিবর্তনশীল ব্যয় কী?
উঃ যে সকল খরচ উৎপাদনের পরিমানের পরিবর্তনের সাথে সাথে প্রত্যক্ষভাবে এবং একই অনুপাতে পরিবর্তিত হয়। তাকে পরিবর্তনশীল ব্যয় বা প্রকৃত পরিবর্তনশীল ব্যয় বলে।
৭। সংরক্ষিত অর্থ কাকে বলে?
উঃ ভবিষ্যতে কোন ত্রুটি বিচ্যুতি মেরামতে ব্যবহার করার জন্য ঠিকাদার যে অর্থ রেখে দেয় তাকে রক্ষিত সংরক্ষিত অর্থ বলে।
৮। আধা-পরিবর্তনশীল উপরিব্যয় কী?
উঃ যে সকল উপরিব্যয়ের মধ্যে আংশিক স্থির ও আংশিক পরিবর্তনশীল খরচ অন্তর্ভুক্ত থাকে তাকে আধা পরিবর্তনশীল ব্যয় বলে।
৯। প্রান্তিক ব্যয় কী?
উঃ কোনাে নির্দিষ্ট পরিমাণ উৎপাদন অপেক্ষা একক উৎপাদনের হ্রাস বৃদ্ধিতে মােট ব্যয়ের যে পরিবর্তন হয় তাকে প্রান্তিক ব্যয় বলা হয়।
১০। প্রত্যক্ষ কাঁচামাল ব্যয় কী?
উঃ যে সকল কাঁচামাল ব্যয় সরাসরি একএক প্রতি আরােপ করা যায় এবং মূখ্য ব্যয়ের অন্তর্ভুক্ত করা হয় তাকে প্রত্যক্ষ কাঁচামাল ব্যয় বলে।
১১। সমতুল্য উৎপাদন কী?
উঃ সাধারণতঃ একটি নির্দিষ্ট সময় শেষে কিছু অসমাপ্ত কার্য বা চলতি কার্য থাকে, এই অসমাপ্ত কার্য বা চলতি কার্যের একককে সমাপ্ত দ্রব্যের একককে রূপান্তর করা কে সমতুল বা সমতুল্য উৎপাদন বলে।
১২। অনুপার্জিত মুনাফা কী?
উঃ একটি প্রক্রিয়া হতে অন্য প্রক্রিয়ায় পণ্য স্থাস্তান্তরের সময় মুনাফা যােগ করে স্থানান্তর করা হলে এবং উক্ত পণ্যের অংশ বিশেষ অবিক্রীত থাকলে, উক্ত অবিক্রীত পণ্যের উপর যে পরিমাণ লাভ ধরা হয়েছে তাকে অনুপার্জিত লাভ বা মুনাফা বলে।
১৩। জব ব্যয় হিসাবের মূল উদ্দেশ্য কি?
উঃ প্রতিটি জবের জন্য পৃথকভাবে ব্যয় নির্ধারণ করা ব্যয় হিসাবের উদ্দেশ্য।
১৪। যন্ত্র ঘন্টা হার কাকে বলে?
উঃ যে পদ্ধতিতে প্রকৃত বাজেটকৃত উপরিব্যয়কে আনুমানিক কার্যকর যন্ত্র ঘণ্টা দ্বারা ভাগ করে যে উপরিব্যয় হার নির্ধারণ করা হয় তাকে যন্ত্র ঘণ্টা হার বলে।
১৫। JIT বলতে কি বুঝ?
উঃ বিপুল পরিমাণ মজুত সংরক্ষণ না করে এবং প্রয়ােজন মাফিক কাঁচামাল সংগ্রহ করাকে সঠিক সময়ােজিত বা Just in time বাঁ JIT বলে।
১৬। উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান কি?
উঃ উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান বলতে কোনাে প্রতিষ্ঠানের কার্যাবলির বিভিন্ন প্রকার ব্যয় লিপিবদ্ধকরণ, বিভক্তিকরণ, বণ্টন এবং প্রতিবেদন পেশের প্রক্রিয়াকে বুঝায়।
১৭। মুখ্য ব্যয় কি?
উঃ যে ব্যয় পদ্ধতিতে প্রত্যক্ষ উৎপাদন ব্যয় ছাড়াও কারখানার স্থায়ী খরচকে আনুপাতিক হারে উৎপাদন ব্যয়ে ধার্য করা হয় তাকে মুখ্য ব্যয় বলে।
১৮। মুনাফা কেন্দ্র বলতে কি বুঝায়?
উঃ প্রতিষ্ঠানের যে বিভাগ পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ করে তাকে মুনাফা কেন্দ্র বলে।
১৯। লিড টাইম কি?
উঃ কাঁচামাল ক্রয়ের জন্য অর্ডার বা ফরমায়েশ প্রদানের পর হতে কাঁচামাল গুদামে আনার সময় পর্যন্ত যে সময় লাগে তাকে লিড টাইম বলে।
২০। ব্যয় আচরণ কি?
উঃ কিছু কিছু ব্যয় একটি নির্দিষ্ট স্তর পর্যন্ত অপরিবর্তিত থাকে এবং উক্ত স্তর অতিক্রমের পর পরিবর্তিত হয় । আবার কিছু কিছু ব্যয় মােটেও পরিবর্তিত হয় না। ব্যয়ের এরূপ বৈশিষ্ট্যকে ব্যয়ের আচরণ বলে।
২১। নিরাপত্তা মজুত কি?
উঃ ন্যূনতম পরিমাণ মাল যা সংরক্ষণ করা হলে মজুদ নিঃশেষজনিত কারণে উৎপাদন বা বিক্রয় বন্ধ থাকে না তাকে নিরাপত্তা মজুত বলে।
২২। উপরিব্যয় কাকে বলে?
উঃ যে সকল খরচ উৎপাদিত একক বা জবের উপর প্রত্যক্ষভাবে ধরা যায় না ঐ সকল ব্যয় বা খরচসমূহকে উপরি খরচ বা উপরিব্যয় বলে।
২৩। ব্যয় আচরণ কি?
উঃ কিছু কিছু ব্যয় একটি নির্দিষ্ট স্তর পর্যন্ত অপরিবর্তিত থাকে এবং উক্ত স্তর অতিক্রমের পর পরিবর্তিত হয় । আবার কিছু কিছু ব্যয় মােটেও পরিবর্তিত হয় না। ব্যয়ের এরূপ বৈশিষ্ট্যকে ব্যয়ের আচরণ বলে।
২৪। প্রতিকূল প্রভেদ কি?
উঃ পূর্ব নির্ধারিত হারের চেয়ে অধিক হারে উপরি খরচের তারতম্য হলে তাকে প্রতিকূল প্রভেদ বলে।
২৫। তিনটি সহায়ক বিভাগের নাম লিখ।
উঃ তিনটি সহায়ক বিভাগের নাম হলাে : ১. শক্তি বিভাগ; ২. চিকিৎসা বিভাগ ও ৩. মাল ক্রয় বিভাগ।
২৬। সময় কার্ড কী?
উঃ কারখানার ভিতরে শ্রমিকদের অবস্থান সময় নির্ণয়ের জন্য যে কার্ড ব্যবহৃত হয় তাকে সময় কার্ড বলা হয়।
২৭। স্বাভাবিক ক্ষতি কী?
উঃ যে ক্ষতি সর্বপ্রকার সাবধানতা অবলম্বন করেও রোধ করা
যায় না তাকে স্বাভাবিক ক্ষতি বলে। একে পরিকল্পিত ক্ষতি বলে।
২৮। উপ-ঠিকাকার্য কী?
উঃ সাধারণত কোনাে মূল ঠিকাকার্যের কিছু অংশ কাজ অন্য ঠিকাদার কর্তৃক সম্পাদিত হলে তাকে উপ-ঠিকাকার্য বলে।
২৯। অস্বাভাবিক ক্ষতি কী?
উঃ যে ক্ষতি প্রয়ােজনীয় সাবধানতা অবলম্বন করে রােধ করা যায় তাকে অস্বাভাবিক ক্ষতি বলে।
৩০। রূপান্তর ব্যয় কী?
উঃ মজুরি ও উপরিব্যয়ের সমষ্টিকে রূপান্তর ব্যয় বলে। কাঁচামালকে পরিপূর্ণ দ্রব্যে বা পণ্যে রূপান্তর করার ক্ষেত্রে এ দুটি ব্যয় অপরিহার্য।
৩১। কারখানা উপরিখরচের একটি উপাদান লিখ।
উঃ কারখানা উপরি খরচের উপাদানগুলাে নিম্নরূপ
১. পরােক্ষ কাঁচামাল, ২. পরােক্ষ শ্রম, ৩.পরােক্ষ খরচসমূহ।
৩২। উপরি খরচ কী?
উঃ যে সকল খরচ উৎপাদিত একক বা জবের উপর প্রত্যক্ষভাবে ধরা যায় না ঐ সকল ব্যয় বা খরচসমূহকে উপরি খরচ বা উপরিব্যয় বলে।
৩৩। মাল অধিযাচন পত্র কী?
উঃ উৎপাদন বিভাগ বা ভাণ্ডার রক্ষকরা সংশ্লিষ্ট। বিভাগের প্রয়ােজনীয় মালের পরিমাণ, দৈনিক ব্যবহার, সংকেত নম্বর ইত্যাদি তথ্য জানিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রয় বিভাগকে মাল ক্রয়ের জন্য যে পত্রের মাধ্যমে অনুরােধ জানায় তাকে মাল ক্রয়ের জন্য যে পত্রের মাধ্যমে অনুরােধ জানায়, তাকে মাল অধিযান পত্র বলা হয় ।
৩৪। ব্যয় চালক কি?
উঃ যেসব উপাদান ব্যয় কে প্রভাবিত করে তাদেরকে ব্যয় চালক বলে।
৩৫। কালীন ব্যয় বলতে কী বুঝ ?
উঃ নির্দিষ্ট সময় কালের সাথে সম্পর্কযুক্ত ব্যয়কে কালীন ব্যয় বলে।
৩৬। ব্যয় কেন্দ্র কি ?
উঃ কোনো পণ্য সামগ্রী ও সেবাকর্ম উৎপাদন করার জন্য যে সকল ক্ষেত্রে বা কেন্দ্র বিন্দুতে অর্থ ব্যয় হয় তাকে ব্যয় কেন্দ্র বলে ।
৩৭। পরোক্ষ ব্যয়ের ঊনপ্রয়োগ বলতে কী বুঝ?
উঃ কোনো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বণ্টনকৃত পরোক্ষ খরচ প্রকৃত পরোক্ষ খরচ অপেক্ষা কম হলে তাকে পরোক্ষ ব্যয়ের ঊনপ্রয়োগ বলা হয় ।
৩৮। মিশ্র একক কি ?
উঃ যে সকল উপাদান একাধিক মিশ্র উপাদান দ্বারা গঠিত এবং বণ্টনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে তাকে মিশ্র একক বলে ।
৩৯। পুনঃফরমায়েশ বিন্দু কী?
উঃ যে পরিমাণ মজুদ পণ্য থাকতেই পুনরায় ক্রয়াদেশ দিতে হয় তাকে পুনঃফরমায়েশ স্তর/বিন্দু বলে।
৪০। পে রােল কী?
উঃ পেরােল হলো একটি কোম্পানির বেতন, মজুরি, বােনাস এবং কর্তানাদির অর্থনৈতিক হিসাব। সব ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের মাস শেষে কর্মচারীদের বেতনভাতা দিতে হয়। কর্মচারিদের পদবী, কার্যঘণ্টা ইত্যাদির উপর ভিত্তি করে বেতনাদি দিতে হয়। একে পেরােল বা বেতনাদি প্রাপকের তালিকা বলা হয়।
থিউরি….
খ-বিভাগ (সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন)
[যে-কোনো পাঁচটি প্রশ্নের উত্তর দাও।]

১। পণ্য ব্যয় ও কালীন ব্যয় কী? পার্থক্য লিখ। ১০০%
অথবা, একক ব্যয় ও ব্যয় এককের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%
২। মজুদের সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ সীমা কী? ১০০%
৩। জব ব্যয় হিসাব ও ঠিকাকার্য ব্যয় হিসাবের মধ্যে পার্থক্য দেখাও। ১০০%
৪। উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান এবং আর্থিক হিসাববিজ্ঞানের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%
৫। প্রক্রিয়া ব্যয় হিসাবের বৈশিষ্ট্যগুলো কি কি? ১০০%
অথবা, প্রক্রিয়া ব্যয় হিসাবের প্রয়োগক্ষেত্র আলোচনা কর। ৯৯%
৬। “দীর্ঘকালীন সকল ব্যয়ই পরিবর্তনশীল”- ব্যাখ্যা কর। ১০০%
৭। শ্রম ব্যয় কি? শ্রম ব্যয় নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্য কি? ১০০%
৮। মাল খতিয়ান ও বিন কার্ডের মধ্যে পার্থক্য কী কী? ১০০%
৯। পরিবর্তনশীল ব্যয় ও স্থির ব্যয়ের মধ্যে পার্থক্য কী? ৯৯%
১০। আচরণভিত্তিতে উপরিখরচ কত প্রকার? উদাহরণসহকারে বর্ণনা কর। ৯৯%
১১। ব্যয়যোগ্য ঠিকাকার্য এবং ব্যয় বৃদ্ধি ধারা বলতে কি বুঝ? ৯৯%
১২। উতপাদন ব্যয় বিবরণী কি? ইহা কিভাবে তৈরি করা? ৯৯%
১৩। কার্যভিত্তিক উতপাদন ব্যয় পদ্ধতি কি? ইহার সুবিধাসমূহ দেখাও। ৯৯%
১৪। উতপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞানের সীমাবদ্ধতা আলোচনা কর।৯৮%
১৫। ব্যয় ও খরচের মধ্যে পার্থক্য দেখাও। ৯৮%
১৬। জব হিসাব ব্যয়ের বৈশিষ্ট্যগুলো বর্ণনা কর। ৯৯%

গ-বিভাগ (রচনামূলক প্রশ্ন)
[যে-কোনো পাঁচটি প্রশ্নের উত্তর দাও।]

১। (ক) উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান কী? ১০০%
(খ) উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান ব্যবস্থাপকীয় পরিকল্পনা ও নিয়ন্ত্রণের হাতিয়ার স্বরূপ’-ব্যাখ্যা কর। ১০০%
২। (ক) প্রত্যক্ষ ব্যয় ও পরোক্ষ ব্যয়ের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%
(খ) উৎপাদন ব্যয়ের উপাদানসমূহ আলোচন কর। ১০০%
৩। (ক) উৎপাদন ব্যয় হিসাবচক্রের বিভিন্ন ধাপসমূহ আলোচনা কর। ১০০%
(খ) উৎপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান ও উৎপাদন ব্যয় নির্ধারণের মধ্যে পার্থক্য লিখ। ১০০%
৪। ক) মজুরি প্রদান কি? মজুরি প্রদানের পাঁচটি পদ্ধতির বর্ণনা দাও। ৯৯%
খ) উত্সাহপ্রদ মজুরি কি? উতসাহপ্রদ মজুরি কেন দেওয়া হয়? ৯৯%
৫। ক) উত্পাদন ব্যয় হিসাব চক্র কি? ” উতপাদন ব্যয় হিসাব ব্যবস্থাপনার অত্যাবশ্যকীয় হাতিয়ার স্বরূপ ” ব্যাখা কর। ৯৯%
খ) উপরিব্যয়কে স্থায়ী ও পরিবর্তনশীল ব্যয়ে বিভক্ত করার প্রয়োজনীয়তা আলোচনা কর।৯৯%
৬। ক) উতপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞানের কৌশলসমূহ বর্ণনা কর। ৯৯%
খ) “উত্পাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞানের মূল উদ্দেশ্য হলো উতপাদন ব্যয় নির্ধারণ এবং উতপাদন ব্যয় নিয়ন্ত্রণ” মন্তব্য কর। ৯৯%
৭। ক) “আর্থিক হিসাববিজ্ঞানের সীমাবদ্ধতার জন্য উতপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞানের উদ্ভব হয়েছে ” ব্যাখ্যা কর। ৯৯%
খ) উতপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞানের পেশাগত নৈতিকতা উল্লেখ কর। রাজা বাবু। ৯৯%
৮। ক) উতপাদন ব্যয় হিসাবের গুরুত্ব বর্ণনা কর। ৯৮%
খ) উতপাদন ব্যয় হিসাববিজ্ঞান এবং ব্যবস্থাপনা হিসাববিজ্ঞানের মধ্যে পার্থক্য নির্ণয় কর। ৯৯%
৯। ক) স্বাভাবিক ও অস্বাভাবিক বেকার সময়ের মধ্যে পার্থক্য কি?
খ) “বিনষ্টজনিত দ্রব্যের ব্যয় প্রয়োগের ক্ষেত্রে পরীক্ষা বিন্দুই মূল বিবেচ্য ” ব্যাখ্যা কর। ৯৮%
১০। টীকা লিখ: (যেকোনো চারটি) :
উতপাদন ব্যয় হিসাবচক্র, জব কার্ড, নিরাপত্তা মজুত, মুনাফা ও ব্যয় কেন্দ্র, আন্তঃপ্রক্রিয়া মুনাফা, ব্যয় একক ও একক ব্যয়, বিন কার্ড, ক্রয় চাহিদা পত্র, সনাতন ব্যয় পদ্ধতি, হেলসি পরিকল্পনা।

গাণিতিক অংশ: হিসাববিজ্ঞান

Part – B
১। ডিগ্রী ২০১৮ সালের ৬,৭,৮,৯ নাম্বার।
২। ডিগ্রী ২০১৬ সালের ৬,৭,৮,৯ নাম্বার।।
৩। ডিগ্রী ২০১৭ সালের ৫,৬,৭,৮ নাম্বার।

অনার্স তৃতীয় বর্ষেরঃ

১। অনার্স ২০১৩ সালের ৬,৭,৮,৯ নাম্বার। ২। অনার্স ২০১৫ সালের ৬,৮,৭,৯ নাম্বার।
৩। অনার্স ২০১৪ সালের ৫,৬,৮,৯ নাম্বার।
৪। অনার্স ২০১৬ সালের ৬,৭,৮,৯ নাম্বার। ৫। অনার্স ২০১২ সালের ৪,৫,৬,৭ নাম্বার।

Part – C
১। ডিগ্রী ২০১৮ সালের ১২,১৩,১৪,১৫*,১৬,১৭ নাম্বার।
২। ডিগ্রী ২০১৬ সালের ১১,১২,১৩,১৪,১৫,১৬ নাম্বার।
৩। ডিগ্রী ২০১৭ সালের ১২,১৩,১৪,১৫,১৬,১৭ নাম্বার।

অনার্সতৃতীয়বর্ষের:

১। অনার্স ২০১৩ সালের ১০, ১১,১২,১৩,১৪,১৫,১৬ নাম্বার। ২। অনার্স ২০১৫ সালের ১০, ১১, ১২,১৩,১৫,১৭ নাম্বার।
৩। অনার্স ২০১৪ সালের ১১,১২,১৪,১৫,১৬ নাম্বার।
৪। অনার্স ২০১৬ সালের ১১, ১২, ১৩, ১৪, ১৫,১৬, ১৭ নাম্বার।
৫। অনার্স ২০১২ সালের ১১,১২,১৪,১৩,১৫,১৬,১৭* নাম্বার।
৬। অনার্স ২০১৮ সালের ১৫,১৬ নাম্বার।
৭। অনার্স ২০১৭ সালের ১৫* নাম্বার।

[বিঃদ্রঃ ★ ষ্টার চিহ্নিত প্রশ্নগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ।]

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *