ডিগ্রি ২য় বর্ষ(২০১৯-২০) নিয়মিত ও প্রাইভেট শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফরম পূরণ চলবে ৭/০২/২০২৩ থেকে ৭/০৩/২০২৩ পর্যন্ত। *পরীক্ষা হবে কেন্দ্র খালি থাকলে এপ্রিলের শুরুতে বা ঈদের পরপরই। কলেজসমূহে ফরম পূরণ ফি ১৫০০ এর মধ্যে।

জ্ঞানতত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন ব্যাখ্যা কর।

অথবা, জ্ঞানতত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন আলোচনা কর।
অথবা, জ্ঞানতত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন বর্ণনা কর।
অথবা, জ্ঞানতত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন সম্পর্কে যা জান বিস্তারিত লিখ।
অথবা, জ্ঞানতত্ত্ব কী? জ্ঞান তত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন সম্পর্কে লিখ।
উভনয় ভূমিকা :
জেন্ডার নারী ও পুরুষের উপর আরোপিত সামাজিক পরিচয় বহন করে। জেন্ডারের শিকড় সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রোথিত। জেন্ডার সমাজে এমন প্যাটার্ন উৎপন্ন করে যা নারী ও পুরুষের মধ্যে পরস্পর সম্পর্কের কাঠামো গড়ে তোলে এবং সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে নারী ও পুরুষের জন্য ভিন্ন ভিন্ন সুবিধাজনক ও অসুবিধাজনক অবস্থান নির্ধারণ করে দেয়।
জ্ঞানতত্ত্ব : Epistemology শব্দটি গ্রিক শব্দ episteme যার অর্থ জ্ঞান (Knowledge) এবং Logos যার অর্থ বিজ্ঞান (Science)। দর্শনের যে শাখা জ্ঞানের প্রকৃতি, পরিধি, বিস্তৃতি ও এর সীমাবদ্ধতা নিয়ে অধ্যয়ন করে তাকে জ্ঞানতত্ত্ব বলে। উৎপত্তিগত অর্থে দর্শনের যে শাখা জ্ঞানের বিভাগ নিয়ে অধ্যয়ন করে তাকে জ্ঞানতত্ত্ব বলা হয়। দর্শনের এই শাখা জ্ঞান সম্পর্কে কতকগুলো প্রশ্নের অনুসন্ধান করে। যেমন- জ্ঞান কি? কিভাবে জ্ঞান অর্জন করা যায়? কিভাবে আমরা জানি; কি জানি? এক্ষেত্রে অধিকাংশ বিতার্কিক আলোকপাত করেছেন। জ্ঞানের প্রকৃতি বিশ্লেষণে জ্ঞানের সাথে সম্পর্কিত ধারণা যেমন সত্য (truth), বিশ্বাস (belief) এবং নায্যতা (Justification)। জ্ঞানের উৎপত্তি উদ্দেশ্যবাদের মতো জ্ঞানের বিভিন্ন শাখা সম্পর্কে দৃঢ়ভাবে আলোচনা করে। স্কটিশ দার্শনিক জেমস ফ্রেডরিক ফেরিয়ার (James Fredrick Ferrier) জ্ঞানতত্ত্ব বিষয়টির প্রথম পরিচিতি ঘটান। জ্ঞান বিষয়টি জ্ঞানের ভিত্তি ও সূক্ষ্ম অনুসন্ধানমূলক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে জ্ঞানের বিভিন্ন শাখা সম্পর্কে অধ্যয়ন করে। ১৯৫০
সালের মাঝামাঝি উইলিয়াম পেরি (William Pary) হার্বাট বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণির -ছাত্রীদের বুদ্ধিমত্তা যাচাইকরেন। এভাবে তিনি জ্ঞানতত্ত্বীয় ধারণার বিকাশ ঘটান। সম্প্রতি সময়ে Susa, Greco, Kvanrig, Zagzebaski প্রমুখ জ্ঞানতাত্ত্বিক যুক্তি দেখান যে, জ্ঞানের আলোকে বিশ্বাসের সত্যতা নিরূপিত হয়।
জ্ঞানতত্ত্বীয় ভিত্তিতে জেন্ডার অধ্যয়ন : জেন্ডার সম্পর্কে বিভিন্ন তাত্ত্বিক অভিজ্ঞতা ভিত্তিক তত্ত্ব ও ধারণা ব্যক্ত করেছেন। জেন্ডার বলতে নারী পুরুষ উভয়কে বুঝায়। জেন্ডার শব্দটি দ্বারা নারী ও পুরুষের মধ্যে পার্থক্য বা অসমতা বা পার্থক্য বুঝায় না। জেন্ডার শব্দটি নিরপেক্ষভাবে নারী ও পুরুষকে নিয়ে অধ্যয়ন করে। জৈবিকভাবে নারী ও পুরুষ পৃথক। কিন্তু জেন্ডার প্রত্যয়টির মাধ্যমে নারী ও পুরুষকে নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। জেন্ডার শব্দটি দ্বারা শুধু নারীকে নয়; নারী ও পুরুষ সম্পর্কে বস্তুনিষ্ঠ জ্ঞান আহরণ, নারী ও পুরুষ সম্পর্কে মানুষের বিশ্বাসএবং নারী ও পুরুষের মধ্যে পার্থক্য, নারী ও পুরুষ সম্পর্কে সমাজে যে প্রচলিত ধারণা রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে জ্ঞান ও তত্ত্বীয় শব্দটির সাহায্যে ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। সমাজে নারী ও পুরুষের ভূমিকা কি? নারী সম্পর্কে সমাজের ধারণা কি? সমাজ নারী সম্পর্কে কি ধারণা পোষণকরে? নারী সম্পর্কে সমাজের মানুষের যে বিশ্বাস, ধারণা সেগুলো জ্ঞানতত্ত্বীয় পদ্ধতিতে এর সত্যাসত্যতা নিরূপণকরা হচ্ছে। নারী ও সত্যিকার ভূমিকা তাদের সম্পর্কে প্রচলিত ধারণা নিরপেক্ষ জ্ঞানতত্ত্বীয় পদ্ধতির সাহায্যে সত্যানুসন্ধান করা হচ্ছে।
উপসংহার : উপর্যুক্ত আলোচনার আলোকে বলা যায় যে, নারী সম্পর্কে যে সব ধারণা রয়েছে এবং নারী সম্পর্কে সমাজের যে বিশ্বাস তা জ্ঞানতত্ত্বের সাহায্যে বিশ্বাসের সঠিকতা নির্ণয় করা যায়। নারী ও পুরুষ সম্পর্কে প্রকৃত বিশ্বাসের সত্যতা উদ্ঘাটনের জন্য জ্ঞানতাত্ত্বিকই বিভিন্ন ধরনের তত্ত্বের উদ্ভাবন করেছেন।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!