জেলা পরিষদের তহবিল কীভাবে গঠিত হয় এবং সংরক্ষণ ও বিনিয়োগ হয়?

অথবা, জেলা পরিষদের তহবিলের গঠন এবং সংরক্ষণ ও বিনিয়োগ কিভাবে হয়?
অথবা, জেলা পরিষদের তহবিলের গঠন এবং সংরক্ষণ ও বিনিয়োগ প্রক্রিয়া আলোচনা কর।
অথবা, জেলা পরিষদের তহবিল গঠন, সংরক্ষণ এবং বিনিয়োগ প্রক্রিয়া লেখ ৷
অথবা, জেলা পরিষদের তহবিল গঠন সংরক্ষণ এবং বিনিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পর্কে যা জান লেখ।
অথবা, ২০০০ সালে প্রণিত জেলা পরিষদ আইনের ৪২ নং ধারাটি উল্লেখ কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭২ সালের স্থানীয় স্বায়ত্ত শাসন আদেশ জারি করে জেলা পরিষদকে জেলা বোর্ড নামে অভিহিত করা হয়। ১৯৮৮ সালে জেলা পরিষদ আইন পাস করে প্রত্যেকটি জেলায় একটি করে জেলা পরিষদ গঠন ও চালু করা হয়। বাংলাদেশের ৩ টি পার্বত্য জেলার অর্থাৎ রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলার জেলা পরিষদ আইন স্বতন্ত্রভাবে পাস করা হয়।
জেলা পরিষদের তহবিলের গঠন, সংরক্ষণ ও বিনিয়োগ : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২০০০ সালে প্রণীত জেলা পরিষদ আইনের ৪২ নং ধারাতে জেলা পরিষদের তহবিল গঠন সংক্রান্ত নিম্নোক্ত বিধি উল্লেখ রয়েছে :
১. জেলা পরিষদ তহবিল নামে প্রত্যেক পরিষদের একটি তহবিল থাকবে। উক্ত তহবিলে নিম্নলিখিত অর্থ জমা হবে; যথা :
ক. এই আইন দ্বারা গঠিত পরিষদ যে জেলা পরিষদের উত্তরাধিকারী সেই জেলা পরিষদের তহবিলের উদ্বৃত্ত অর্থ ।
খ. পরিষদ কর্তৃক ধার্যকৃত কর রেইট, টোল, ফিস এবং অন্যান্য দাবি বাবদ প্রাপ্ত অর্থ :
গ. পরিষদের উপর ন্যস্ত এবং তৎকর্তৃক পরিচালিত সকল সম্পত্তি হতে প্রাপ্ত আয় বা মুনাফা;
ঘ. সরকার বা অন্যান্য কর্তৃপক্ষের অনুদান;
ঙ. কোনো স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি কর্তৃক প্রদত্ত অনুদান;
চ. পরিষদের উপর ন্যস্ত সকল ট্রাস্ট হতে প্রাপ্ত আয়;
ছ. পরিষদের অর্থ বিনিয়োগ হতে মুনাফা;
জ. পরিষদ কর্তৃক প্রাপ্ত অন্য যে কোনো অর্থ;
ঝ. সরকারের নির্দেশক্রমে পরিষদের উপর ন্যস্ত অন্যান্য আয়ের উৎস হতে প্রাপ্ত অর্থ ২০০০ সালের জেলা পরিষদ আইনের ৪৩ নং ধারাতে পরিষদের তহবিল সংরক্ষণ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত বিধি রয়েছে :
১. পরিষদের তহবিলে জমাকৃত অর্থ কোনো সরকারি ট্রেজারিতে বা সরকারি ট্রেজারির কার্য পরিচালনাকারী কোনো ব্যাংকে অথবা সরকার কর্তৃক নির্ধারিত অন্য কোনো প্রকারে রাখা হবে।
২. পরিষদ নির্ধারিত পদ্ধতিতে তার তহবিলের কোনো অংশ বিনিয়োগ করতে পারবে।
৩. পরিষদ কোনো বিশেষ উদ্দেশ্যে আলাদা তহবিল গঠন করতে পারবে এবং সরকার কর্তৃক আদিষ্ট হলে উক্তরূপ তহবিল গঠন করবে এবং নির্ধারিত পদ্ধতিতে তা পরিচালনা করবে।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, জেলা পরিষদের তহবিল সুনির্দিষ্ট বিধি মোতাবেক সংক্ষিত ও গঠন করা হয়। এ তহবিল হতে জেলা পরিষদের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন ও অন্যান্য উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের খরচ মিটানো হয়।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!