Answer

কৃষির স্থানান্তরের ক্ষেত্রে বিপণন সমস্যা ও সমাধানসমূহ আলোচনা কর।

অথবা, কৃষির স্থানান্তরের ক্ষেত্রে বিপণন সমস্যা ও সমাধানসমূহ বর্ণনা কর।
অথবা, কৃষির স্থানান্তরের ক্ষেত্রে বিপণন প্রতিবন্ধকতা ও সমাধান ব্যবস্থা বর্ণনা কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
উন্নয়নশীল দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পূর্বশর্ত কৃষি উদ্ভাবন। কারণ অতীতে কৃষির গুরুত্ব যেমন সর্বজনীন ছিল বর্তমানে সেরূপ না থাকলেও অনেক উন্নয়নশীল দেশের জন্য কৃষি অর্থনীতির মেরুদণ্ড হিসেবে কাজ করে। আজকের শিল্পোন্নত দেশগুলোর প্রতিটি মূলত কৃষিনির্ভর দেশ ছিল। কৃষিভিত্তিক দেশ হওয়া সত্ত্বেও বাংলাদেশে কমি উন্নয়নের গতি মন্থর।
বিপণন সমস্যা ও সমাধান : বাংলাদেশে কৃষিপণ্যের বিপণনে বহুবিধ সমস্যা থাকায় উৎপাদনকারী তার পণ্যের ন্যায্যমূল্য পায় না। এদেশে বিপণনের প্রধান সমস্যাগুলো নিম্নরূপ :
১. মধ্যবর্তী ব্যবসায়ীদের অস্তিত্ব : বাংলাদেশের কৃষি বাজারের বিভিন্ন পর্যায়ে বেপারি, ফড়িয়া, ফটকা বাজারি আড়তদার, মজুতদার প্রভৃতি মধ্যবর্তী ব্যবসায়ী রয়েছে। এরা কৃষি ফসলের বিক্রয়লব্ধ আয়ের সিংহভাগ আত্মসাৎ করে। ফলে প্রকৃত উৎপাদনকারী কৃষক শস্যের ন্যায্য দাম পায় না।
২. ত্রুটিপূর্ণ ওজন ও পরিমাপ : দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের ওজন পদ্ধতি প্রচলিত রয়েছে। কাঁচি পাঢ়ি কেজি সের ইত্যাদির প্রচলন শস্য পরিমাপের ক্ষেত্রে ভিন্নতা নিয়ে আসে। দেশের গ্রামাঞ্চলে সাধারণ মানের ওজনের পদ্ধতির অভাবে কৃষকরা সহজেই প্রতারিত হয়।
৩. বাজার সম্পর্কিত তথ্যের অভাব : উৎপাদিত পণ্যের উপযুক্ত দাম পেতে হলে উৎপাদনকারীকে তার বাজার অবস্থা সম্পর্কে সবসময়ই অবহিত থাকা প্রয়োজন। এজন্য রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে বিভিন্ন কৃষিপণ্যের দাম ও তার উঠানামা সম্পর্কে প্রচারের ব্যবস্থা থাকা উচিত। বাংলাদেশে কৃষিপণ্যের বাজার চাহিদা, যোগান, দাম ইত্যাদি সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্যের অভাব রয়েছে। এ ব্যাপারে অজ্ঞ থাকায় কৃষকরা উৎপাদিত পণ্যের উপযুক্ত দাম পায় না।
৪. অনুন্নত পরিবহন ব্যবস্থা : উৎপাদিত কৃষিপণ্য সহজে ও কম খরচে বাজারজাত করতে হলে পরিবহন ব্যবস্থা উন্নত থাকা দরকার। বাংলাদেশে উন্নত পরিবহন ব্যবস্থার অভাবে কৃষিপণ্য উপযুক্ত বিক্রয় কেন্দ্রে সহজে আনা যায় না৷ পণ্যের পরিবহন খরচ বেশি পড়ে বলে লাভের অঙ্ক কমে যায়।
৫. শস্য সংরক্ষণে অসুবিধা : কৃষিপণ্যের উপযুক্ত দাম পেতে হলে ফসল তোলার মৌসুমেই তা বিক্রয় না করে সংরক্ষণ করা উচিত। এজন্য পণ্য সংরক্ষণের সুবিধা সৃষ্টি প্রয়োজন। বাংলাদেশে শস্য সংরক্ষণ সুবিধার অভাবে কৃষক উৎপাদনের পর পরই অল্প দামে তা বিক্রয় করে ফেলে। ফলে সে উপযুক্ত দাম থেকে বঞ্চিত হয়। এর ফলে তার আয়
বাড়ে না। এছাড়াও শস্যের শ্রেণিবিভাগের অভাবে এবং অসংঘটিত বাজার ব্যবস্থার দরুনও কৃষক তার পণ্যের উপযুক্ত দাম লাভে সক্ষম হয় না।-
সমাধান : বাংলাদেশের কৃষিপণ্যের বিপণন ব্যবস্থা অত্যন্ত ত্রুটিপূর্ণ। এ কারণে কৃষক তার পণ্যের উপযুক্ত দাম পায় না। কৃষিপণ্যের বিপণন ব্যবস্থা উন্নত এবং কৃষককে তার পণ্যের উপযুক্ত দাম পেতে সাহায্য করতে হলে এর বিপণন ব্যবস্থা উন্নত ও ত্রুটিমুক্ত করতে হবে। এ উদ্দেশ্যে নিম্নলিখিত পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন :
১. বাংলাদেশের কৃষিপণ্যের বিপণন ব্যবস্থা উন্নত করতে হলে আগে এর বিপণন ব্যবস্থায় দালাল অথবা মধ্যবর্তী ব্যবসায়ীদের অস্তিত্ব নির্মূল কিংবা প্রাধান্য হ্রাস করতে হবে।
২.এ উদ্দেশ্যে দালাল বা মধ্যবর্তী ব্যবসায়ীদের জন্যলাইসেন্স প্রথা প্রবর্তন করা আবশ্যক। এর ফলে যে কেউ শস্য বিপণনে শরিক হয়ে কৃষকদের ঠকাতে পারবে না।
৩.আমাদের কৃষকরা দরিদ্র ও অসংঘটিত বলে উৎপাদিত পণ্যের দাম নিজের অনুকূলে রাখতে পারে না। তাই পণ্যের উপযুক্ত দাম পেতে হলে তাদের সমবায়ভিত্তিক বিপণন ব্যবস্থা গড়ে তোলা উচিত।
৪.পণ্য সংরক্ষণ করে যখন তার যোগান কমে যায় তখন বিক্রয় করা উচিত। এতে পণ্যের ভালো দাম পাওয়াযায়। ঐ জন্য অবশ্য পণ্য গুদামজাতকরণের সুবিধা থাকা প্রয়োজন। তাই বিপণন সমস্যা দূর করতে হলে গুদামজাতকরণের সুবিধা বৃদ্ধি করা দরকার।
৫.কৃষিপণ্যের পরিমাপের জন্য বিভিন্ন ওজন পদ্ধতি ব্যবহার করলে কৃষকদের সহজেই প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে ।
তাই কৃষকদের স্বার্থে দেশের সর্বত্র সাধারণ মানের ওজন, পরিমাপ ও নিয়মকানুন প্রবর্তন করা প্রয়োজন।
৬.যানবাহন ও পরিবহন ব্যবস্থা উন্নত হলে গ্রামের সঙ্গে বিভিন্ন দূরবর্তী বাজারের সংযোগ স্থাপিত হয়। ফলেকৃষকরা স্বল্প পরিশ্রম ও খরচে তাদের পণ্য দূরবর্তী বাজারে নিয়ে গিয়ে উপযুক্ত দামে বিক্রয় করতে পারে।
এজন্য যানবাহন ও পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন অপরিহার্য।
৭.কৃষিপণ্যের দাম ও তার উঠানামা, চাহিদা, যোগান ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্যাদি প্রচার করা উচিত। দেশে কৃষিতথ্যকেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে বাজার তথ্যাবলি প্রচার করা প্রয়োজন।
৮. কৃষিপণ্যের দাম খুব উঠানামা করে বলে কৃষকরা প্রায় বিভ্রান্ত হয় এবং সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। তাই উৎপাদিত পণ্যের দাম স্থিতিশীল ও মান বজায় রাখা আবশ্যক।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, বিপণন ক্ষেত্রে বিরাজমান সমস্যাসমূহ সমাধান করা হলে কৃষিপণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে ।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!