একাধিক স্ত্রী গ্রহণ করার কারণ কী?

অথবা, বহুবিবাহের কারণ লিখ।
অথবা, একাধিক বিবাহ সংঘটিত হওয়ার কারণগুলো লিখ।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বাংলাদেশে এক বিবাহভিত্তিক পরিবারই বেশি। তবে গ্রামীণ ধনী মুসলিম পরিবারে একাধিক স্ত্রী বিবাহভিত্তিক পরিবারের অস্তিত্ব রয়েছে। যদিও ইদানিং এর সংখ্যা কমে গেছে।
একাধিক স্ত্রী গ্রহণ করার কারণ : যে সব কারণে গ্রাম সমাজের কিছু ধনী লোক একাধিক স্ত্রী গ্রহণ করে তা হলো :
১. গৃহস্থালী কাজকর্ম : ধনী কৃষি পরিবারে ফসলাদি প্রক্রিয়াজাতকরণ, রান্না-বান্না, সন্তান লালন পালন এবং সংসারের অন্যান্য কাজ কর্মে একাধিক বয়স্ক মহিলা কর্মীর প্রয়োজন দেখা দেয় বিধায় একাধিক স্ত্রী গ্রহণ করা হয়।
২. সম্মান, মর্যাদা ও ক্ষমতার প্রতীক : কারো কারো দৃষ্টিতে একাধিক স্ত্রী গ্রহণ সমান, মর্যাদা ও ক্ষমতার প্রতীক বলে বিবেচিত হয়।
৩. সন্তান জন্মন্দানে ব্যর্থতা : প্রথম স্ত্রী যদি সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ হয় তবে সন্তানের আশায় দ্বিতীয় স্ত্রী গ্রহণ করা হয় ।
৪. পুত্র সন্তানের প্রত্যাশায় : পুত্র সন্তানের প্রত্যাশায় একাধিক স্ত্রী গ্রহণ করে এদেশের অনেক পুরুষ।
৫. প্রথম স্ত্রীর দূরারোগ্য ব্যাধি : প্রথম স্ত্রী দূরারোগ্য কোন ব্যাধিতে ভুগলে বা শয্যাশায়ী হয়ে থাকলে দ্বিতীয় স্ত্রী গ্রহণ করা হয়।
৬. আর্থরাজনৈতিক সুবিধা : আর্থরাজনৈতিক সুবিধা অর্জনের জন্য দ্বিতীয় স্ত্রী গ্রহণ করা হয়। যেমন- সম্পত্তির লোভে কোন বিধবাকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ, নেতৃত্ব প্রদান বা ক্ষমতার বলয় বৃদ্ধির জন্য একাধিক স্ত্রী গ্রহণও অজানা নয় ।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, একাধিক স্ত্রী গ্রহণ বর্তমান সমাজে তেমন একটা দেখা না গেলে প্রাচীন কালে এটি বহুল পরিচিত একটি বিবাহরীতি ছিল। বিভিন্ন আইন প্রয়োগ করে একাধিক স্ত্রী গ্রহণ হ্রাস পেয়েছে।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*