ডিগ্রি ২য় বর্ষ(২০১৯-২০) নিয়মিত ও প্রাইভেট শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফরম পূরণ চলবে ৭/০২/২০২৩ থেকে ৭/০৩/২০২৩ পর্যন্ত। *পরীক্ষা হবে কেন্দ্র খালি থাকলে এপ্রিলের শুরুতে বা ঈদের পরপরই। কলেজসমূহে ফরম পূরণ ফি ১৫০০ এর মধ্যে।

ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পরিচালনার ক্ষেত্রে কী বিধি রয়েছে?

অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পরিচালনার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের বিধি প্রযোজ্য রয়েছে?
অথবা, কোনো বিধি দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পরিচালনা করা হয়?
অথবা, কোনো আইনের মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পরিচালনা করা হয়।
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পরিচালনার ক্ষেত্রে ২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইনের ৬২ নং ধারাটি পর্যালোচনা কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বাংলাদেশের পল্লি অঞ্চলে কয়েকটি গ্রামের সমন্বয়ে একটি ইউনিয়ন পরিষদ গঠিত হয়। গ্রামীণ সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে পল্লির শ্রীবৃদ্ধি, গণসচেতনতা ও দায়িত্বশীল নেতৃত্ব বিকাশের লক্ষ্যে ইউনিয়ন পরিষদ অনবদ্য ভূমিকার অধিকারী ।
ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারী পরিচালনা : ২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইনের ৬২ নং ধারাতে ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারী পরিচালনা সম্পর্কিত নিম্নোক্ত বিধি রয়েছে।
১. প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদের একজন সচিব, একজন হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটের থাকবেন, যারা সরকার বা সরকার কর্তৃক নির্ধারিত কোনো কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিযুক্ত হবেন।
২. সরকার, ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ, চাকরির শর্ত নির্ধারণ, বেতন-ভাতা প্রদান, শৃঙ্খলা ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ, অবসর প্রদান ইত্যাদি বিষয়ে বিধি প্রণয়ন করবে।
৩. পরিষদ সরকারের পূর্বানুমোদনক্রমে পরিষদের অন্যান্য সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ক্ষমতা ও দায়িত্ব পালন সম্পর্কিত বিষয়ে প্রবিধান প্রণয়ন করবে।
৪. সরকরের পূর্বানুমোদনক্রমে, ইউনিয়ন পরিষদ, প্রয়োজনবোধে অতিরিক্ত জনবল নিয়োগ করতে পারবে। যাদের বেতন, ভাতা সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব তহবিল হতে পরিশোধ করতে হবে। ৬৩ নং ধারার অধীন হস্তান্তরিত কোনো সরকারি কর্মকর্তা বা কর্মচারীর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ সমীচীন মনে করলে পরিষদ এ বিষয়ে প্রাথমিক অনুসন্ধান করে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বা কর্মচারি নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন প্রেরণ করবে। ৬৪নং ধারাতে পরিষদের ব্যবস্থাপনাধীন কর্মকর্তা বা কর্মচারীগণের আইনগত অধিকার ও পেশাগত স্বাধীনতা নিশ্চিত করবার লক্ষ্যে সরকার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং পরিষদের নিয়ন্ত্রণাধীন বা পরিষদের হস্তান্তরিত কর্মকর্তা বা কর্মচারীগণের মধ্যে সম্পর্ক নির্ধারণ বিষয়ক একটি আচরণ বিধি (Code of conduct) প্রণয়ন করবে। এছাড়াও বিধিতে উল্লেখ রয়েছে যে, নির্বাচিত কোনো জনপ্রতিনিধি কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে কোনো কার্য সম্পাদনের জন্য মৌখিক নির্দেশনা প্রদান করলেও সংশ্লিষ্ট কাজটি বাস্তবায়নের পূর্বে লিখিতভাবে নির্দেশনা দিতে হবে।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকারের সর্বনিম্ন স্তর হলেও ইউনিয়ন পরিষদ বর্তমানে কার্যকরী একটি সংস্থা। সুনির্দিষ্ট নিয়ম বিধি ও তদারকির জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প্রত্যক্ষ তত্ত্ববধানে এর কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!